দূরে কেন বৈশাখে পরমব্রতা

দূরে কেন বৈশাখে পরমব্রতা
সৌহার্দ সিরাজ

বহুদিন পরে দেখা,আছো কেমন সুরনারী!
কাছে এসে বসো রোদেলা আকাশ দেখি
বৈশাখ এসেছে আবার ভাটির দেশে ফিরে
চোখে চোখ রাখি আমরা আবার!
হাতে হাত,এসো
নড়ে উঠুক নতুন পৃথিবী পুরাতন সম্ভাষ নে।

কতদিন পরে দেখা!
দূরে কেন শুকপাখি স্মৃতিগন্ধা ভোর!
আগুন রঙে ছেঁয়েছে স্বদেশ, দেখ
চিংড়ি-পান্তা-ইলিশের ঘ্রাণে মেতেছে মাতাল হাওয়া
কত ছায়া, মেঘ মেঘ মায়ার কাজল
দূরে কেন পরমব্রতা!
বৈশাখের আবিরে এসো সিক্ত হই।

জানি তো কেমন আছে তোমার ফুলের বাগান
ক্রমাগত সকাল, কলাবতী ডিঙার বহর!
বৈশাখে ঢাকের শব্দ শোনো শিমুলের বনে,
অতুল ঐশ্বর্যের রৌদ্র উড়ে যায় শঙ্খচিলের ডানায়,
ক্লান্তির বিছানায় পিঠ ফিরে শোয়
সূর্যের অনুকম্পা,
ঘরে ঘরে উৎসব আজ, মেতেছে বাংলার নরম প্রাণ।

পুরানো জোছনা ধরি আবার দুজন, এসো
বৈচিত্রের মোহনায় রঙের আনন্দে হাসুক বৈশাখী ফুল
দিন চলে যাক দিনের পথে পথে
মন চলে যাক চাঁদের প্রসন্নতায়
আমরা গান গাই এসো, সৃষ্টির সমীরণে।

এসো বুক ভরা দিনলিপি
নব জীবনের আলো!
অনেকদিন পরে যখন আবার দেখা আমাদের প্রান্তিক বৈশাখে
বকুলগন্ধে ডুবি, এসো
ভালোবাসার সম্মানে বাঁধি পৃথিবীর সব সাধ, সব সমাধান।