এমপিপুত্রের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার অভিযোগ ছাত্রলীগের


প্রকাশিত : এপ্রিল ২৮, ২০১৮ ||

ন্যাশনাল ডেস্ক: বরগুনায় সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর ছেলে সুনাম দেবনাথের বিরুদ্ধে মাদক বিক্রির চক্রকে নেতৃত্ব দেয়ার অভিযোগ এনেছে জেলা ছাত্রলীগ। শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ আনা হয়।

তবে সুনাম বলেছেন, প্রমাণ ছাড়া অকারণে অভিযোগ তুলে তাকে এবং আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে তার বাবাকে হয়রানি করতে দলের ভেতর একটি চক্র এই কাজ করছে।

অন্যদিকে সুনামের বাবা চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলেছেন, তার ছেলে যদি মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকে তাহলে পুলিশ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। তিনি বাধা হয়ে দাঁড়াবেন না।

শনিবার সকালে বরগুনা প্রেসক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলনে বরগুনা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক ও সাধারণ সম্পাদক তানভির হোসাইন বলেন, ‘একজন এমপি পুত্রের কাছে জিম্মি এখন বরগুনার অধিকাংশ তরুণ-যুবা-কিশোর।’

সুনাম দেবনাথের ইশারায় মাদক বাণিজ্য চলছে অভিযোগ করে ছাত্রলীগ নেতারা বলেন, জেলা পুলিশ বাহিনীর একের পর এক অভিযানের পরেও কমছে না মাদক সন্ত্রাস। কারণ সর্ষের মধ্যেই রয়েছে ভূত!

নির্যাতন, নিপীড়ন, অপমান ও অপদস্ত হওয়ার ভয়ে কেউ কথা বলে না বলেও অভিযোগ করেন দুই ছাত্রলীগ নেতা। সংবাদ সম্মেলনে বেশ কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে বলা হয়, এদের মাধ্যমেই মাদকের চক্র চালানো হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব মৃধাও সুনামের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছেন। তিনি বলেন, সুনাম দেবনাথের মাদক বাণিজ্যের বিষয়টি বরগুনাবাসী সবাই জানে। তার নেতৃত্বে মাদক পৌঁছে যায় গ্রামে গঞ্জে। এই একটি সিন্ডিকেটকে নির্মূল করা গেলে বরগুনাকে মাদকমুক্ত করা যাবে।

জানাতে চাইলে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর বলেন, যেহেতু অভিযোগটি ছাত্রলীগের এটি ছাত্রলীগই ভাল বলতে পারবে। তবে অপরাধী যেই হোক আইনের মাধ্যমে তার বিচার হওয়া উচিত।

বরগুনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন বলেন, ছাত্রলীগ যে অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার সত্যতা রয়েছে।

এ বিষয়ে সুনাম দেবনাথের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার সাথে যারা থাকে তারা ব্যক্তিগতভাবে কে কী করে সার্বক্ষণিকভাবে তার খোঁজ খবর রাখা আমার একার পক্ষে সম্ভব নয়।

সুনাম দেবনাথের বাবা সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু বলেন, আমার ছেলে যদি মাদক ব্যবসা করে তবে পুলিশ তা খতিয়ে দেখুক।