প্রতিবন্ধী শিক্ষাথীদের নতুন পোষাক বিতরণ করলেন ডিসি

আব্দুর রহমান: জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন বলেন, ‘প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়, তাদের সঠিক প্রশিক্ষণ দিতে পারলে তারাও প্রতিযোগিতায় সেরা হতে পারে। প্রতিবন্ধীরা আমাদেরই সন্তান। তাদের কল্যাণে আমাদেরকেই কাজ করতে হবে। প্রতিবন্ধী শিশুদের পাশে সমাজের বৃত্তবানদের দাঁড়াতে হবে। খুব শিগগিরই সাতক্ষীরায় নিজস্ব ভবনে প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়টি নির্মাণ করা হবে। শিশুদের মেধা-মনন ও দক্ষতা বিকাশে বৃত্তবানদের সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানান তিনি। জেলা প্রশাসক আরো বলেন, ‘বর্তমান সরকার প্রতিবন্ধীবান্ধব সরকার। এ ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ রয়েছে। তিনি মায়ের মমতায়, প্রতিবন্ধীদের বিশেষ করে নারী-বালিকা প্রতিবন্ধীদের ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করছেন। আমাদের দায়িত্ব হবে এই কাজে সবাই মিলে একত্রে এগিয়ে যাওয়া। আগামী নভেম্বর সাতক্ষীরা জেলার মাটিতে প্রতিবন্ধীদের বিভাগীয় পর্যায়ের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে। তোমাদের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’
শনিবার (২জুন) সকালে সুইড খাতিমুন্নেছা হানিফ লস্কর বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের শিক্ষাথীদের মাঝে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নতুন পোষাক বিতরণ অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন এসব কথা বলেন।
সুইড খাতিমুন্নেছা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন অফিসার মিজানুর রহমান, প্রতিবন্ধী সেবা কেন্দ্রর কনসালটেন্ট ডা. এসএম হাবিবুর রহমান, সাতক্ষীরা আহ্ছানিয়া মিশনের সহ সম্পাদক আব্দুর রহমান, রিয়াজুল জান্নাত ক্যাডেট মাদরাসার পরিচালক শহিদুল ইসলাম, অভিভাবক মুর্শিদ হোসেন প্রমুখ।
উল্লেখ্য, বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোস্তফা কামাল লস্কারের আর্থিক সহায়তায় ৮৮জন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নতুন পোষাক প্রদান করা হয়। নতুন পোষাক পেয়ে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা আনন্দে-উৎসবে মেতে ওঠে। এসময় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন ও সমাজসেবক ডা. আবুল কালাম বাবলা তাদের সার্বিক বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখার আশ্বাস প্রদান করেন।