মিথ্যে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি ও পৈত্রিক সম্পত্তি উদ্ধারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশিত : জুন ১০, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: অবৈধভাবে দখলকৃত সম্পত্তি উদ্ধারের চেষ্টা করায় জমির মালিকের ছেলেকে মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করার পাশাপাশি বাড়িঘর ভাংচুর ও হুমকি ধামকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন সাতক্ষীরা শহরের রসুলপুর এলাকার মৃত নাজের সরদারের ছেলে জোহর আলী। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, রসুলপুর মৌজার জে.এল-৯২, এস.এ ৪৬৯, ২০৭ ও ৪১৭ খাতয়ানে সাবেক ৯০ দাগের ৪৭ শতক জমির মূল মালিক মরহুম মুনিরদ্দীন সরদার। মুনিরদ্দীনের ওয়ারেশ হিসাবে ধোনাই সরদার, সৌরভ বিবি ও গোলজান বিবি প্রাপ্ত হন। ধোনাই সরদার ও গোলজান বিবি জীবিত থাকা অবস্থায় তাদের অংশ থেকে ১২ শতক জমি রসুলপুর এলাকার মৃত আদাড় সরদারের ছেলে নুর মোহাম্মাদসহ তার ৬ ভাই বোন প্রত্যোকের কাছে ২ শতক করে বিক্রি করেন। পরবর্তীতে নুর মোহাম্মাদের ওই ৬ ভাই বোনের মধ্য থেকে একজন শরীক তার অংশ মাত্র ২ শতক পাওয়া স্বত্বেও সে একই এলাকার মৃত মাহফুজুর রহমানের ছেলে আমিনুর রহমানের কাছে বিক্রি করে সাড়ে ৯ শতক জমি। আমিনুর রহমান জমি ক্রয়ের পর ওই ৯০ দাগের মধ্য থেকে সাড়ে ৯ শতক জমি অবৈধভাবে জোরপূর্বক দখল করে নেয় এবং আমরা যাতে ওই সম্পত্তি উদ্ধার করতে না পারি সেজন্য আমাদেরকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিতে থাকে। কিন্তু আমাদের আটকাতে না পেরে মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানির চেষ্টা চালাতে থাকে।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমার ছেলে মজনু সরদার জমাজমি দেখাশুনা করায় আমিনুর মিথ্যে মামলায় জড়িয়ে তাকে জেলে পাঠায়। এখন পর্যন্ত সে আমাদের নামে ৫টি মিথ্যে অভিযোগ দায়ের করেছে। আমিনুর কর্তৃক অবৈধভাবে জমি দখলের বিষয়ে সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অদালতে মামলা করলে আদালত উক্ত সম্পত্তিতে উভয় পক্ষকে স্ব স্ব অবস্থানে থেকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার নির্দেশ দেন। কিন্তু তারপরও আমিনুর রহমান, তার ছেলে তুহিন ও তাজকিন তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের নিয়ে গত ৫ জুন আমার বাড়িতে ঢুকে ভাংচুর করতে থাকে। এসময় বাধা দিতে গেলে আমার স্ত্রী সোনালী বিবি, শালিকা সাজেদা বিবি ও তার ছেলে সাজ্জাতকে তারা বেধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায় তারা আমার শালিকা সাজেদাকে গাছর সাথে বেধে পিটিয়ে আহত করে। এঘটনার পর উল্টো তারা থানায় অভিযোগ দিয়ে আমাদেরকে হয়রানি করছে। অঢেল টাকা মালিক হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করে আমিনুর অবৈধভাবে আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
তিনি কুচক্রি আমিনুরের দেয়া মিথ্যে মামলার দায় থেকে ছেলেকে অব্যহতি ও তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে সাজ্জাত, সাজেদা বিবি ও তহমিনা বিবি উপস্থিত ছিলেন।