ডুমুরিয়ায় হালখাতার দিনে পণ্য বিক্রি না করায় দোকানে হামলা: মামলা তুলে নিতে হুমকি


প্রকাশিত : জুন ১০, ২০১৮ ||

 

ডুমুিরয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: হালখাতার দিনে পন্য বিক্রি করতে রাজি না হওয়ায় এক গার্মেন্টস দোকানে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে দুই ক্রেতা। ঘটনাটি ঘটেছে ডুমুরিয়া উপজেলার চেচুড়ি গ্রাম সংলগ্ন মনিরামপুর উপজেলার কপালিয়া বাজারের। এ ঘটনায় ক্ষতির শিকার দোকানী দিপক সরদার মনিরামপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলা দায়ের করায় হামলাকারীরা দীপক সরকারকে মামলা তুলে নিদে হুমকি ধমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মামলার এজারহার সূত্রে জানা যায়, ডুমুরিয়া উপজেলার চেঁচুড়ি গ্রামের ধীরেন্দ্রনাথ সরকারের ছেলে দীপক কুমার সরকারের কপালিয়া বাজারে অমিয় গামেন্টস ও বস্ত্রালয় নামে একটি দোকান রযেছে। ওই দোকানে গত ১ জুন হালখাতা চলছিল। রাত সাড়ে ৮টার দিকে চেচুড়ি গ্রামের মৃত মালু সরদারের ছেলে হুমায়ুন সরদার (৩৫) ও কামাল সরদার (৪১)সহ আরও ৫/৬জন দোকানে এসে গেঞ্জি ও শাট কিনতে আসে। দোকানে হালখাতা থাকায় পণ্য বিক্রি করতে রাজি না হওয়ায় তারা দোকানে হামলা ও ভাংচুর করে। এ সময়ে হালখাতায় আদায় হওয়া প্রায় তিন লাখ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। তারা দীপক সরকারকে মারপিটও করে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এদিকে থানায় মামলা করায় আসামীরা দীপক সরকারকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি ধমকি দিচ্ছে বলে দীপক সরকার জানিয়েছেন। আসামীরা দীপক সরকারকে হুমকি দিয়ে বলেছে মামলা হয়েছে মনিরামপুরে। পুলিশ সেখান থেকে ডুমুরিয়া থানায় এসে গ্রেপ্তার করতে পারবে না।এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মনিরামপুর থানার উপ-পরিদর্শক আশরাফুল আলম বলেন ঘটনার তদন্ত চলছে। আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোকাররম হোসেন বলেন, ঘটনাটি মনিরামপুর থানা এলাকায় হলেও আসামী ও বাদী উভয়ের বাড়ি ডুমুরিয়া থানায়। তাই আসামী গ্রেপ্তারে সময় লাগছে। খুব শীঘ্রই আসামীরা গ্রেপ্তার হবে বলে জানান তিনি।