শ্যামনগরে ভিজিএফ চালের পরিবর্তে প্লাস্টিক চাল!


প্রকাশিত : জুন ১৩, ২০১৮ ||

 

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগরের ১০নং আটুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বিতরণকৃত অসহায় গরিব ও মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ৩০ কেজি করে যে চাল বিতরণ করা হয়েছে তাতে প্লাস্টিকের চাল পাওয়া গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত ১১ জুন পরিষদ থেকে এ চাল বিতরণ করা হয়। বিতরণকৃত চালের মধ্যে ৪০ শতাংশ প্রায় প্লাস্টিকের চাল মেশানো বলে অভিযোগে প্রকাশ। আটুলিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সাপেরদুনে গ্রামে আয়শা খাতুন নামের এক মহিলার ভিজিএফ কার্ডে ৪০ শতাংশ চালই প্লাস্টিকের চাল। এখবর জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে প্লাস্টিকের চাল দেখতে তার বাড়িতে ভিড় জমায়। ৩০৬নং কার্ডধারী আয়শা খাতুন ইউনিয়ন পরিষদে থেকে চাল বাড়িতে আনার পরে বস্তার মুখ খুলেই প্লাস্টিকের চালের অস্তিত্ব পান। বস্তায় নিট ওজন ৩০ কেজি দেওয়ার কথা থাকলেও প্রতিটি বস্তায় চাল কম পেয়েছেন বলে জানান তারা। আটুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু সালেহ বাবু জানান, ঐ কার্ড ধারীর চাল পরিষদে এনে প্লাস্টিকের চালের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। যেভাবে গোডাউন থেকে চাল আনা হয়েছিল সেভাবেই বিতরণ করা হয়েছিল। এমনিভাবে বিভিন্ন কার্ডধারীরা প্লাস্টিকের চালের সন্ধান পেয়েছেন মর্মে মুঠোফোনে প্রতিনিয়ত অভিযোগ করছেন। এ নিয়ে আটুলিয়া ইউনিয়নসহ শ্যামনগরে জনসাধারণের মধ্যে প্লাস্টিক চালের আতংক বিরাজ করছে। তবে আদৌ প্লাস্টিকের চালের অস্তিত্ব আসে কি না সে ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের কোন মতামত জানা সম্ভব হয়নি।