কয়রায় গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ


প্রকাশিত : জুন ২০, ২০১৮ ||

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি: খুলনার কয়রায় দুই সন্তানের জননী এক গৃহবধূকে রাতের আঁধারে হাত ও মুখ বেধে গণধর্ষণ করা হয়েছে। ঈদের আগের রাতে উপজেলার গোবরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূ বর্তমানে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল গফ্ফার ঢালী জানিয়েছেন, ঈদের আগের দিন রাত ১১টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। ওই গৃহবধূ রাতের বেলা প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে আসলে দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে তার হাত ও মুখ বেঁধে ঘরের পিছনে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ধর্ষিতাকে ফেলে রেখে তারা ওই স্থান ত্যাগ করে। পরে তার গোঙানির শব্দে পাশের বাড়ির লোকজন সেখানে উপস্থিত হয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। ধর্ষিতার স্বামী জানান, ঘটনার সময় তিনি বাড়িতে ছিলেন না। খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে পৌছান। সেখানে তার স্ত্রীর মুখে ধর্ষকদের নাম পরিচয় জানতে পারেন। কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. সুজাত আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষিতার শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। তার অবস্থার অবনতি দেখে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। কয়রা থানার ওসি এনামুল হক জানান, ঘটনার খবর জানতে পেরে ধর্ষকদের ধরতে অভিযান চালানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি।