দেবহাটায় ধর্ষণ মামলার আসামী ফজর আলী গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : জুন ২১, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: দেবহাটায় ছাত্রী ধর্ষণ করার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ইতোমধ্যে ধর্ষক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে। মামলাটি করেন কালিগঞ্জ উপজেলার সন্যাসীরচর গ্রামের আজিজুল বারির ছেলে মো. জহুরুল হক (৪১)। স্থানীয় সূত্র ও মামলার আরজি থেকে জানা যায়, দেবহাটা উপজেলার হাদীপুর আহছানিয়া আলিম মাদ্রাসায় শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন জহুরুল হক, একই প্রতিষ্ঠানের আইসিটি বিষয়ক শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন কালিগঞ্জ উপজেলার কাশেমপুর গ্রামের দবিরউদ্দীন খানের ছেলে ফজর আলী। চাকরির সুবাদে ফজর আলী প্রায়ই জহুরুল হকের বাড়িতে আসা যাওয়া করতেন। বাড়িতে যাওয়া আসার সুযোগে ফজর আলী দীর্ঘ দুই বছর ধরে জহুরুল হকের মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ও নানা রকম ছলচাতুরি করে ধর্ষণ করে আসছিল। গত ১০-৬-১৮ তারিখ আনুমানিক রাত ১০টার সময় ফজর আলী জহুরুল হকের মেয়েকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় জহুরুল হকের স্ত্রী বিষয়টি টের পেয়ে চিৎকার করলে সে পালিয়ে যায়। এই বিষয়ে জহুরুল বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ২০০১ এর ৯(১) ধারায় দেবহাটা থানায় মামলা করলে পুলিশ ফজর আলীকে গ্রেপ্তার করে। মামলা নং ১২। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফজর আলী এই ধরণের কাজ আগেও দুইবার করেছে। তবে স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের সহযোগিতায় তিনি বিষয়টি ধামাচাপা দিয়েছিলেন।