নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের অভিশাপ থেকে মুক্তি পেলো রোকেয়া


প্রকাশিত : জুন ২১, ২০১৮ ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: সদ্য দশম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ রোকেয়া খাতুন বাল্য বিয়ের অভিশাপ থেকে মুক্তি পেয়েছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুজন সরকারের হস্তক্ষেপে মুলত এ যাত্রায় রক্ষা পেল মেয়েটি। এরআগে শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামানের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ নিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়াদের বাড়িতে অভিযান চালায়। ঘটনাটি ঘটে ১৯ জুন বিকালে উপজেলা সদরের বাদঘাটা গ্রামে। রোকেয়া উপজেলা সদরের বাদঘাটা গ্রামের আব্দুর রউফের মেয়ে এবং জোবেদা সোহরাব মডেল একাডেমীর ছাত্রী। পীররগাজন গ্রামের জনৈক রুহুল কুদ্দুসের ছেলে জাকির হোসেনের সাথে তার বিয়ে প্রস্তুতি চলছিল।
এদিকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেয়ার লিখিত মুচলেকা দেয়ার পাশাপাশি রোকেয়ার পিতা আব্দুর রউফকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ১৮৬০ সালের সেকশন ১৮৮ ধারায় এক হাজার টাকা জরিমানা করে স্থানীয় ইউপি সদস্যের জিম্মায় ছেড়ে হয়।