শ্যামনগরে ভয়াবহ নদী ভাঙন


প্রকাশিত : জুন ২১, ২০১৮ ||

শ্যামনগর (সদর) প্রতিনিধি: শ্যামনগরের দাতিনাখালীর ৫নং পোল্ডারের চুনার নদীর বেড়িবাঁধ ভাঙন মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। বর্তমানে বেড়িবাঁধের দুই তৃতীয়াংশ নদীতে চলে গেছে বাকী টুটু ফাটল নিয়েছে। সামনের বড় জোয়ারে এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়া জুয়েলের কাঁকড়া হ্যাচারীর সামনে দেওয়া রিং বাঁধ ছিদ্র হয়ে ভিতরে লোনাপানি ঢুকছে। অথচ এলাকাবাসি স্থানীয় চেয়ারম্যান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, বিজিবি অধিনায়ক এমনকি এমপি মহোদয়কে অবহিত করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পানি উন্নয়ণ বোর্ডের এসও মাসুদ রানা, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবি অধিনায়কের পক্ষ থেকে এলাকা পরিদর্শন করেছেন। এলাকার মানুষ ভাঙন আতঙ্কে বসবাস করছে। ক্যামেরা বন্দী ছবিটি গত শনিবার তোলা হয়। এরপরেও বেড়িবাঁধের অবস্থা আরও ঝূকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। বর্তমানে এলাকাবাসি স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিত্বে বালির বস্তা ফেলে ভাঙন রক্ষা করার চেষ্টা করছে। অথচ স্থানীয় চেয়ারম্যান ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে কোন প্রকার সহযোগিতা করেননি। তারা বলেন, বরাদ্দ না থাকলে ভাঙন কুলে কাজ করা সম্ভব নয়। উক্ত স্থান ভেঙে গেলে শ্যামনগর উপজেলাসহ কালিগঞ্জ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন নদীর পানিতে প্লাবিত হয়ে জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হবে। তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে দাতিনাখালী নাসির মোড়লের বাড়ি থেকে নদী ভাঙন দীর্ঘ বছরের সমস্যা। ইতোমধ্যে ভাঙনরোধে জাইকা প্রকল্পের অর্থায়নে কারিতাস কাজ করেছে। সর্বশেষ পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও মাসুদ রানা জানান, ওই এলাকায় ব্লক বসানোর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে সময় লাগবে এখনও ৫ মাস। এ মুহূর্তে বাধটি সংস্কার খুবই জরুরী।