ফয়জল্যাপুরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের পাকাঘরের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করলেন নজরুল ইসলাম


প্রকাশিত : জুন ২২, ২০১৮ ||

শেখ হেদায়েতুল ইসলাম: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও সংগ্রাম সম্পর্কে সবাইকে জানতে হবে বলে মন্তব্য করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম।

 

শুক্রবার ফিংড়ীর ফয়জল্যাপুর গ্রামে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার নির্মাণ কাজ উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

 

এ সময় প্রধান অতিথি বলেন বঙ্গবন্ধুর দর্শন ১৯৪৮ সালে ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে লিপিবদ্ধ হয়েছে। স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধুর দর্শন অঙ্কিত রয়েছে। আমাদের সবাইকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী ও ৬৬’র ৬ দফা, ১৯৬৯’র গণঅভ্যুত্থান এবং ১৯৭১’র স্বাধীনতা সংগ্রামের অবদান জানতে হবে। প্রধান অতিথি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল এ দেশকে সোনার বাংলায় পরিণত করা। তার সংগ্রাম ছিল প্রত্যেক মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা নিশ্চিত করা। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন প্রধানমন্ত্রী বাস্তবায়ন করে চলেছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সোনার বংলা বাস্তবায়নে ডিজিটাল বাংলাদেশ ও উন্নত দেশ গড়ার লক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। তিনি আরো বলেন, সৃজনশীল ও প্রগতিশীল চিন্তার মানুষের অপার বন্ধুত্ব আর ভালবাসায় ¯িœগ্ধ বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার। এ পাঠাগার কোন গতানুগতিক পাঠাগার নয়।

 

এর প্রতিটি কার্যক্রম সৃষ্টিশীল, সেবামুলক. সমাজ গঠনে সহায়ক ও দিক নির্দেশনামূলক। স্কুল শিক্ষার্থীর পাশাপাশি এ পাঠাগারের সকল সদস্যকে বই পড়ে জ্ঞান অর্জন করতে হবে। শুক্রবার সকাল ১০টায় ফয়জল্যাপুর গ্রামে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার আয়োজিত এ নির্মাণ কাজ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. কাদের মোল্যার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ও অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. আবুল খায়ের সরদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. লুৎফর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. শামছুর রহমান, ইউপি সদস্য মহাদেব চন্দ্র ঘোষ, ইউনিয়ন কৃষকলীগ সভাপতি ডা. গোবিন্দ চন্দ্র দাশ, ইউপি সদস্য রেবেকা সুলতানা, মধুসুধন মন্ডল, শামছুর মোল্যা, স্বদেশ মন্ডল, অবিনাশ মন্ডল, ওয়ার্ড কৃষকলীগ সভাপতি রঞ্জন মন্ডল প্রমুখ।