শ্যামনগরে জামাইয়ের নখ তুলে নিল শ্বশুর


প্রকাশিত : আগস্ট ১৮, ২০১৮ ||

শ্যামনগর (সদর) প্রতিনিধি: শ্যামনগরে মধ্যযুগীয় কায়দায় শ্বশুর সাত্তার ঢালী নিজের জামাতা আব্দুস সামাদ গাজীর পায়ের নখ তুলে নিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুরের দিকে আশাশুনি উপজেলার নাসিমাবাদপুর গ্রামে এ ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় আব্দুস সামাদ শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। সে কাশিমাড়ী ইউনিয়নের পূর্ব কাশিমাড়ী গ্রামের আব্দুস সাত্তার গাজীর ছেলে।
আহত আব্দুস সামাদ জানান, সে ভাটায় কাজ শেষে বাড়ীতে ফিরে স্ত্রী সালমাকে আনতে শ্বশুর বাড়িতে যায়। কিন্তু সালমা আসতে অস্বীকৃতি জানায়। সামাদ কারণ জানতে চাইলে সালমা শ্বশুর শাশুড়ীর সাথে এক সংসারে থাকতে আপত্তি জানায়। এতে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে শ্বশুর সাত্তার ঢালী ছেলেদের সাথে নিয়ে সামাদকে চোখ বেঁধে বেধড়ক মারপিট করে এবং সাড়াশি দিয়ে সামাদের পায়ের পাঁচ আঙ্গুলের নখ তুলে ফেলে। সমূহ বিপদ বুঝতে পেরে সামাদ কোন রকমে ঘর থেকে দৌড়ে পার্শ্ববর্তী চোরাগাং খাল সাতরে নিজ বাড়িতে চলে আসে। বিষয়টি কাশিমাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফকে জানালে তিনি সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেন। এঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে সামাদ জানায়।