ওয়ার্কার্স পার্টির আটনেতার হত্যাবার্ষিকী ও মেনন হত্যা প্রচেষ্টা দিবসে সাতক্ষীরায় মিছিল সমাবেশ


প্রকাশিত : আগস্ট ১৮, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গায় ওয়ার্কার্স পার্টির আটনেতার হত্যাবার্ষিকী ও রাশেদ খান মেনন হত্যা চেষ্টা বার্ষিকীতে সাতক্ষীরায় দলীয় নেতাকর্মীরা মিছিল সমাবেশ করেছে। শুক্রবার বিকালে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ। বক্তব্য রাখেন দলের জেলা সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ মহিবুল্ল্যাহ মোড়ল, এড. ফাহিমুল হক কিসলু, উপাধ্যক্ষ ময়নুল হাসান, আব্দুর রউফ, স্বপন কুমার শীলসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। সমাবেশ শেষে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
সমাবেশে মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি বলেন, হত্যা সন্ত্রাসের রাজনীতি প্রতিষ্ঠিত করার জন্য বিএনপি জামাত শিবিরের কাঁধে সওয়ার হয়ে নতুন নতুন ষড়যন্ত্র করছে। যা জনগন আর সরকারের দুরদর্শিতায় বারবার ওইসব ষড়যন্ত্র ব্যার্থ হচ্ছে। মার্কিনীদের পৃষ্ঠপোষকতায় ড. কামালের মতো রাজনীতিকরা দেশে ঘৃন্য রাজনীতিহীন সরকার গড়ার পায়তারা করেছে বারবার। তাতে ব্যার্থ হয়ে এবার বিএনপি জামাতের ঘৃণ্য জঙ্গিবাদী রাজনীতির ভীত রচনার চেষ্টা করছে। ড. কামাল, বিএনপি, জামাত আর বিভিন্নধরনের ষড়যন্ত্রীভিত্তিক দলের এসব কামনা বাসনা অলিক স্বপ্নে পরিনত করবে জনগন। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশে আর কখনও সন্ত্রাসী ও জঙ্গীবাদীর সরকারে আসতে পারবে না। তিনি সবার উদ্দেশ্যে বলেন, চৌদ্দদলীয় জোটের রাজনীতিকে শহর থেকে গ্রামে ছড়িয়ে দিতে হবে। বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টিকে শক্তিশালী করে জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ, ঘুষ, দুর্নীতিমুক্ত ও সমতাভিত্তিক জনগণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামকে বেগবান করতে হবে। তিনি অবিলম্বে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির চুয়াডাঙ্গা জেলার আট নেতাকর্মীর হত্যাকারীদের এবং পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন হত্যা চেষ্টাকারীদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানান।