কালিগঞ্জে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা


প্রকাশিত : আগস্ট ২৯, ২০১৮ ||

বিশেষ প্রতিনিধি: কালিগঞ্জে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় তিন জনকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব হোসেন জানান, বুধবার ধর্ষিতা গৃহবধূর (২৪) ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালতে তার জবানবন্দী রেকর্ড করা হয়।
জানা যায়, পাশর্^বর্তী দেবহাটা উপজেলায় বসবাসরত স্বামীর সাথে মনোমালিন্যের জের ধরে কালিগঞ্জের নলতা ইউনিয়নের ঝায়ামারীতে পিতার বাড়িতে অবস্থানকালে কাজলা গ্রামের নওশের পাড়ের ঘরজামাই পল্লী চিকিৎসক মনিরুজ্জামান (৩৫) ক্লিনিকে চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে গৃহবধূকে নলতায় নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে ইন্দ্রনগর গ্রামের হাসান পাড়ের ছেলে ফিরোজ হোসেন (২৬) ওই নারীকে নিয়ে কয়েকদিন পূর্বে ঘোড়াপোতায় জনৈক রফিকুল ইসলামের বাড়িতে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বসবাস শুরু করেন। সেখানে মনিরুজ্জামানসহ তার অপর দু’সহযোগী তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে রবিবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে এলাকাবাসির খবরের ভিত্তিতে থানার উপ-পরিদর্শক নিয়াজ মোহাম্মদ খানের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভুক্তভোগী নারীকে উদ্ধার করেন। এসময় আপত্তিকর অবস্থায় হান্নান পাড়কে আটক করা হলেও ফিরোজ হোসেন ও মনিরুজ্জামান পালিয়ে যায়। এব্যাপারে পল্লী চিকিৎসক মনিরুজ্জামানকে প্রধান আসামি এবং অপর দু’সহযোগীকে আসামি করে থানায় মামলা (মামলা নং-১৬) হয়েছে।