কালিগঞ্জে নিহত ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে জাপার প্রতিনিধি দল: আজ মানববন্ধন


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কালীগঞ্জে দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত ইউপি চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফের বাড়িতে গেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) একটি প্রতিনিধি দল। বুধবার দুপুরে জাপার চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নির্দেশনায় তার তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ও সাবেক মন্ত্রী সৈয়দ দিদার বখ্ত নেতাকর্মীদের নিয়ে সেখানে যান। এ সময় সৈয়দ দিদার বখত বলেন, আমরা এই নৃশংস হত্যার নিন্দা জানাই। হত্যাকারীরা ইতোমধ্যে শনাক্ত হয়েছে। গ্রেপ্তারও হয়েছে কয়েকজন। দ্রুত সকল হত্যাকারী ও হত্যার পরিকল্পনাকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।
তিনি আরও বলেন, হত্যার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করা হবে। হত্যাকারীরা গ্রেপ্তার না হলে পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।
এ সময় নিহতের স্ত্রী ও মেয়ে হত্যাকা-ের বর্ণনা দিয়ে দ্রুত হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি করেন। বর্তমানে তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান।
এ সময় জেলা জাপার সভাপতি শেখ আজহার হোসেন, সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম, এসএম নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান আশু, যুব সংহতির সভাপতি শাখাওয়াতুল করিম পিটুল, সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের, ছাত্র সমাজের সভাপতি কায়সারুজ্জামান হিমেল, সাধারণ সম্পাদক আকরামুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক রোকনুজ্জামান সুমন, সদর উপজেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার জাহিদ তপন, কালিগজ্ঞ উপজেলা সভাপতি মাহবুবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী, সাংগঠণিক সম্পাদক শেখ সাদিকুর রহমান, এনজিও বিষয়ক সম্পাদক এসএম আহম্মদ উল্লাহ বাচ্চু, শ্যামনগর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সাগর, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু, বিষ্ণুপুর জাতীয় পাটির সভাপতি মাষ্টার আব্দুস সালাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। প্রতিনিধিটি দলটি নিহতের কবর জিয়ারত করেন।
উল্লেখ্য, গত শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে জেলা জাতীয় পার্টির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, কালীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের তিন বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান এম মোশাররফকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ হত্যাকা-ে জড়িত থাকায় এখন পর্যন্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে রনজিত নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ।