ওপেনিং ব্যর্থতায় দলে যোগ দিচ্ছেন ইমরুল-সৌম্য


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৮ ||

খেলার খবর: তামিম ইকবালবিহীন ওপেনিং মোটেও সুবিধা করতে পারছে না। তাই ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে উড়িয়ে আনছে টিম ম্যানেজমেন্ট। শুক্রবার তাদের এশিয়া কাপের দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার খবর নিশ্চিত করেছেন আকরাম খান।

তামিমের ইনজুরির পর শেষ দুটি ম্যাচে ওপেনিংয়ে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্ত। তাই সুপার ফোরের বাকি দুই ম্যাচে তাদের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না টিম ম্যানেজমেন্ট। দলের চাওয়াতেই শেষ পর্যন্ত নির্বাচকরা ইমরুল ও সৌম্যকে নিয়ে আসছে আরব আমিরাতে।

ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান নিশ্চিত করেছেন খবরটি। শুক্রবার তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘ওপেনিং জুটি বেশ ভোগাচ্ছে দলকে। তাই টিম ম্যানেজমেন্টের চাহিদার ভিত্তিতে তাদের আনা হচ্ছে (সংযুক্ত আরব আমিরাতে)। আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলতে না পারলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে তাদের খেলার সম্ভাবনা আছে।’

এই মুহূর্তে সৌম্য ও ইমরুল এইচপির চার দিনের ম্যাচ খেলছেন খুলনাতে। শনিবার যশোর থেকে বিমানে ঢাকায় ফিরেই দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা হবেন তারা। স্থানীয় সময় শনিবার রাত ১০টায় তাদের দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা।

হুট করে দুই ওপেনারকে আনার কারণ ব্যাখ্যায় আকরাম খান বলেছেন, ‘তামিম ইনজুরিতে পড়াতে ওপেনিং নড়বড়ে অবস্থা। দুটি ম্যাচে দল ওপেনিং থেকে ভালো পারফরম্যান্স পাইনি। টিম ম্যানেজমেন্ট একজন ওপেনারের কথা বলেছে। আমরা ঝুঁকি না নিয়ে দুজন ওপেনারকে নিয়ে আসছি। টিম ম্যানেজমেন্ট ও বোর্ড প্রধানের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে ইমরুল-সৌম্যকে আনছি।’

দেশ ছাড়ার আগেই দলে ইনজুরি নিয়ে সমস্যা ছিল। তামিম, মুশফিক, শান্ত ও সাকিব- এই চার ক্রিকেটার ইনজুরি নিয়ে এশিয়া কাপ খেলতে এসেছেন। যদিও তখন না খেলার মতো পরিস্থিতি হয়নি, তবে তামিম শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে কব্জির ইনজুরিতে পড়ে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে যান। যে কারণে ওপেনার হিসেবে দলের সঙ্গে দ্বিতীয় পছন্দ হিসেবে আসা শান্তর অভিষেক হয়।

তামিমের ইনজুরির পর প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছিলেন, তার বদলি খেলোয়াড় পাঠানো হবে না। তবে হঠাৎ কেন পাঠানো হচ্ছে? আকরামের উত্তর, ‘আমরা এসব বিষয় চিন্তা করেই একজন ব্যাকআপ খেলোয়াড় নিয়ে এসেছি। কিন্তু শান্ত ভালো করতে পারেনি। ওর জন্য দারুণ সুযোগ ছিল। এই মুহূর্তে তারা পারফর্ম করতে পারেনি বলেই আমাদের বদলি খেলোয়াড় আনতে হচ্ছে।’