সরকারের ১০ বছরের উন্নয়ন প্রচারে কালিগঞ্জে আওয়ামী লীগের জনসভায় জনতার ঢল


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮ ||

নিয়াজ কওছার তুহিন: প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের ১০ বছরের উন্নয়ন, সাফল্য ও অগ্রগতি প্রচারে কালিগঞ্জে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাতক্ষীরা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্জ্ব মো. নজরুল ইসলাম বলেছেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার। সকল ক্ষেত্রে দৃশ্যমাণ উন্নয়ন শুধু দেশের মানুষের কাছে নয়, বিদেশেও প্রশংসা কুড়াচ্ছে। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর মতো মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে সরকার দেখিয়ে দিয়েছে এই সরকারের পক্ষে সবই সম্ভব। প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে গেছে। আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন আছে। শনিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলা সদরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্জ্ব নজরুল ইসলাম দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রাখতে আগামী নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কণ্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবারও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বাণ জানান।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শেখ ওয়াহেদুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবং বক্তব্য রাখেন অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা মুক্তিযোদ্ধা শেখ আতাউর রহমান, সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সাঈদ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রশিদ, জেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান, বিষ্ণুপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ রিয়াজ উদ্দীন, কুশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ মেহেদী হাসান সুমন, জেলা পরিষদ সদস্য নুরুজ্জামান জামু প্রমুখ।
উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ শাওন আহমেদ সোহাগ ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আহবায়ক শেখ ইকবাল আলম বাবলু’র সঞ্চালনায় দশ সহ¯্রাধিক নেতা-কর্মীসহ নারী-পুরুষের উপস্থিতিতে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সজল মূখার্জী, দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন সভাপতি গোবিন্দ মন্ডল, কুশুলিয়া ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কালিগঞ্জ ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক এসএম গোলাম ফারুক, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সালাউদ্দীন আহম্মেদ, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর, সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মনিররুল ইসলাম মনি, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি গৌতম লস্কার, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী জেবুন্নাহার জেবু, উপজেলা মহিলা যুবলীগের সভানেত্রী ফাতেমা ইসলাম রিক্তা, উপজেলা ইউপি সদস্য এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সামছুজ্জামান, তারালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সরদার আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ।
এদিকে বিকেল ৪টার জনসভাকে কেন্দ্র করে দুপুরের পরপরই উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার নারী-পুরুষ বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল প্রাঙ্গনে মিছিল নিয়ে হাজির হতে থাকে। বিশেষ করে বিপুল সংখ্যক নারীর উপস্থিতি ছিল লক্ষ্য করার মতো। ম্যুরাল প্রাঙ্গনে জনসভার স্থল, ফুলতলা মোড় গোলচত্ত্বর, খান বাহাদুর আহছান উল্লা (র.) সেতু এলাকায় জনতার ঢল নামে। কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শনিবারের এই জনসভাকে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ জনসভা হিসেবে উল্লেখ করেছেন অনেক নেতা-কর্মী ও সমর্থক।