উৎসাহ উদ্দীপনামুখর উন্নয়ন মেলার দ্বিতীয় দিন


প্রকাশিত : October 6, 2018 ||

পত্রদূত ডেস্ক: বিপুল জনসমাগম ও ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে খুলনায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে চতুর্থ জাতীয় উন্নয় মেলা-২০১৮। উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় এগিয়ে চলা অদম্য বাংলাদেশের এমডিজি বাস্তবায়নের সাফল্য ও এসডিজি অর্জনে গৃহীত পদক্ষেপসমূহের সাথে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগের সাফল্য সম্ভাবনার বর্নিল প্রদর্শনী চলছে মেলার স্টলসমূহে।
খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ৪ থেকে ৬ অক্টোবর তিন দিনব্যাপী চলমান এ মেলার দ্বিতীয় দিন সকাল ১০টায় মেলা প্রাঙ্গণের মূল মঞ্চে স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহণে রিয়েলিটি শো, রচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল তিনটায় ছিল সরকার গৃহীত উন্নয়ন কর্মকান্ডের ওপর বিশেষ প্রদর্শনী। বিকেল চারটায় অনুষ্ঠিত হয় ‘শিক্ষিত জাতি সমৃদ্ধ দেশ শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনার। সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) নিশ্চিত কুমার পোদ্দার। প্রধান আলোচক ছিলেন খুলনা উন্নয়ন কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএসএম মাহমুদ হাসান। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। এতে সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। সন্ধ্যায় ছিল বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান। উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্থানে আলোকসজ্জাসহ স্থাপন করা হয়েছে এগিয়ে চলা বাংলাদেশের উন্নয়ন বর্ণনা সম্বলিত ব্যানার।
খুলনা জেলা প্রশাসন আয়োজিত এ মেলা প্রণবন্ত ও কার্যকর মাধ্যম হিসেবে জনসাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এর মাধ্যমে দেশে চলমান সার্বিক উন্নয়ন প্রকল্প, শেখ হাসিনার বিশেষ ১০ উদ্যোগ ও দেশে বিদেশে এ সকল কার্যক্রমের স্বীকৃতি, পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, এক্সপ্রেসওয়ে, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ন্যায় মেগা প্রকল্প সমূহ সম্পর্কে সাধারণ মানুষ জানার সুযোগ পাচ্ছে। মেলায় আনন্দঘন পরিবেশে সরকারি বেসরকারি দপ্তরসমূহ তাদের উন্নয়ন ভাবনা তুলে ধরছে। তাৎক্ষণিক সেবা প্রদান, মানুষের অভিযোগ ও তার ত্বরিত সমাধানের মাধ্যমে অংশীজনের আস্থার জায়গাটি আরও দৃঢ় হচ্ছে।
আগামীকাল ৬ অক্টোবর মেলার শেষ দিনের আয়োজনে থাকছে সকাল ১০টায় উন্নয়ন কর্মকান্ড প্রদর্শন ও বিকেল সাড়ে চারটায় আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান।