ফাঁসি রদ করে যাবজ্জীবনের নির্দেশ হাইকোর্টের


প্রকাশিত : October 6, 2018 ||

কলকাতা প্রতিনিধি: ডাইনি অপবাদে তিন মহিলাকে খুন করার অভিযোগে সাতজনকে ফাঁসির নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। এবার সেই সাতজনের ফাঁসির নির্দেশ রদ করে যাবজ্জীবন কারাদ-ের নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয়মাল্য বাগচি এবং মৌসুমি ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ। হাইকোর্ট সূত্রে জানা গিয়েছে, পশ্চিম মেদিনীপুরের দুবরাজপুর এলাকার একটি প্রামে পর পর কয়েকজনের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। যার জেরে ‘জানগুরু’ নির্দেশ দেয়, গ্রামে ডাইনি রয়েছে। তিন মহিলাকে ডাইনি সন্দেহে চিহ্নিত করা হয়। তাঁরা হলেন ফুলমণি সিং, সম্বারি সিং ও সম্ভারি সিং। ২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর গ্রামের মোড়লের বাড়ির সামনে পঞ্চায়েত বসে। সিদ্ধান্ত হয়, ওই তিনজনকে ৬০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ওই তিনজন এবং তাঁদের পরিজনরা এই ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যাপারে অক্ষমতার কথা জানালে, তাঁদের কংসাবতী নদীর দিকে টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে মারধর করে খুনের পর ১৭ অক্টোবর নদীর ধারে পুঁতে দেওয়া হয়। এরপর দাসপুর থানায় ৪২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়। ২০১৬ সালের ১৬ মে মেদিনীপুর আদালত সাতজনকে ফাঁসি, ছ’জনকে যাবজ্জীবন, এবং একজনকে সাত বছর জেলের নির্দেশ দেয়। এরপর একজন বাদে বাকিরা আইনজীবী শেখর বসু এবং শৌভিক মিত্রের মাধ্যমে হাইকোর্টে আবেদন করেন। এদিন ডিভিশন বেঞ্চ দু’জন মহিলাকে বেকসুর খালাস করে দিয়েছে।