কলারোয়ায় বিএনপি ও ছাত্রদল নেতাকে পেটালো মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা


প্রকাশিত : নভেম্বর ৩০, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় মুখোশদারী দুর্বৃত্তরা পেটালো বিএনপি ও ছাত্রদলের দু’নেতাকে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে কলারোয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সোনালী ব্যাংক-ইসলামী ব্যাংকের সামনে ও পলাশ সিনেমা হল মোড় এলাকার পৃথক দু’টি স্থানে এ ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত হয়েছেন পৌর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আখলাকুর রহমান শেলী ও ছাত্রদলের সহ-সভাপতি শাহিনুর রহমান। আখলাকুর রহমান শেলী কলারোয়ায় সুপারস্টার বাল্ব কোম্পানির ডিলার ও ব্যবসায়ী।
আহতরা জানান, সন্ধ্যা ৬টার দিকে নিজের ব্যবসায়ীক দোকানে বসে ছিলেন শেলী। তখন অচেনা এক যুবক জরুরী প্রয়োজনের কথা বলে তাকে দোকানের বাইরে আসতে অনুরোধ করে। তিনি দোকানের বাইরে যাওয়া মাত্রই ওই যুবক কিল-থাপ্পর-ঘুষি মারতে থাকে শেলীকে। আচমকা এ ঘটনায় তিনি বাধা দিতে গেলে ও চিৎকার করলে আশপাশের দোকানদাররা ছুটে আসে। তখন মুহূর্তের মধ্যে ৫/৭টি মোটরসাইকেলে ১০/১২জন মানকি টুপি ও হেলমেড পরিহিত কয়েকজন ব্যক্তি হকিস্টিক দিয়ে বেধড়ক পেটাতে থাকে শেলীকে। তখন তিনি ছুটে পালানোর চেষ্টা করলে ওই ব্যক্তিরা সোনালী ব্যাংকের সামনের রাস্তার গলি পর্যন্ত গিয়ে তাকে দ্বিতীয় দফায় পেটাতে থাকে। আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে গেলে দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেল যোগে দ্রুত স্থান ত্যাগ করে। হঠাৎ এ ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীরা হতভম্ব হয়ে পড়েন। গুরুতর আহতাবস্থায় তাৎক্ষণিক তাকে কলারোয়া হাসপাতালে নেয়া হলে এক্সরের জন্য পাঠানো হয়। এক্সরে রিপোর্টের পর আহত শেলীকে চিকিৎসার জন্য সাতক্ষীরায় নেয়া হয়েছে বলে তারা জানান।
অপরদিকে, নদীর ওপারে পলাশ সিনেমা হল মোড় এলাকায় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি শাহিনকেও অনুরূপভাবে মানকি টুপি ও হেলমেড পরিহিত দুর্বৃত্তরা লাঠিসোটা দিয়ে মারপিট করেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে।
আহত আখলাকুর রহমান শেলী জানান, ‘চিকিৎসার পরে একটু সুস্থ হলে অভিযোগ দায়ের করা হবে।’
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মারুফ আহম্মদ জানান, ‘ঘটনাটি শুনেছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’