শ্যামনগরের পদ্মপুকুর গ্রামে পুত্রের অত্যাচারে ধনাঢ্য পিতা মাতা বাড়ি থেকে বিতাড়িত


প্রকাশিত : ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮ ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগরের পদ্মপুকুর গ্রামে পুত্রের অত্যাচারে ধণাঢ্য পিতা মাতা বাড়ি থেকে বিতাড়িত হয়ে জামাতার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পদ্মপুকুর গ্রামের মোহাম্মাদ আলী ঢালীর পুত্র ধণাঢ্য লিয়াকত ঢালী জানান, তার পুত্র ইলিয়াস ঢালী অসৎ চক্রের সাথে জড়িত হয়ে ডাকাতি সংঘটিত করার অপরাধে ইতোপূর্বে ২টি মামলা হয়। সে দুর্দান্ত প্রকৃতির হওয়ায় তার পিতাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ১০ বিঘা জমি জোর পূর্বক রেজিস্ট্রি করে নেয়। অবশিষ্ঠ প্রায় ৫০ বিঘা জমি উক্ত ইলিয়াস ঢালী পুনরায় জোরপূর্বক লিখে নিতে তার পিতা ও মাতাকে মারধর, খুন, জখম করার হুমকি অব্যাহত রেখেছে ফলে বাধ্য হয়ে পুত্রের অত্যাচারে দ্বিতল বাড়িসহ বসত ভিটা হতে লিয়াকত ঢালী ও তার স্ত্রী কুলসুম বিবি বিতাড়িত হয়ে তার জামাতার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে। তার জামাতা আটুলিয়ার কুপট গ্রামের আমির হামজার বাড়িতে শ্বশুর-শাশুড়িকে আশ্রয় দিয়ে পড়েছে বিপাকে। তার শ্বশুর লিয়াকত ঢালী দুরারোগ্য, কানে শ্রবন করতে না পারা এবং তার শাশুড়ি কুলসুম বিবি ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে চলাফেরায় অক্ষম। তাদের সমস্ত জমি জোরপূর্বক ইলিয়াস ঢালী ক্ষমতাপ্রাপ্তে স্বাক্ষর নিয়ে ভোগ দখল করছে। চরম চিকিৎসা অবহেলায় পুত্রের অত্যাচারে ধণাঢ্য হয়েও অতি কষ্টে জীবন যাপন করছে লিয়াকত ঢালী ও তার স্ত্রী। ইলিয়াস ঢালীর ও তার স্ত্রী রেহেনা পারভীন সর্বদা তাদের অন্য ওয়ারেশ দের সম্পত্তি বঞ্চিত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। অসীম নির্যাতন চালাচ্ছে জমির লোভে পিতা-মাতাকে। আশ্রয় দাতা ইলিয়াস ঢালীর দুলাভাই আমির হামজার উপর চাপ অব্যাহত রেখেছে ইলিয়াস। ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে যে কোন মুহূর্ত্তে ইলিয়াস ঢালী খুন জখম করার হুমকিতে আমির হামজার বাড়িতে আক্রমন, মিথ্যা মামলায় জড়ানো হতে পারে বলে আমির হামজা জানান। ইলিয়াস ঢালী জমি লিখে নেওয়া ও তার পিতা-মাতা বাড়িতে নেই বলে স্বীকার করলেও অন্যান্য বিষয় অস্বীকার করেন। পুত্রের নির্যাতন থেকে পিতা-মাতা ও শ্যালকের হুমকি থেকে রক্ষা পেতে যথাযথ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভুক্তিভোগী মহল।