উৎসব আমেজে যশোরের শার্শায় ভোট গ্রহণ: বিএনপিসহ অন্যদলের প্রার্থী ও সমর্থকদের উপস্থিতি কম


প্রকাশিত : December 31, 2018 ||

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: যশোর-১ (শার্শা) আসনে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমূখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। ১০২টি কেন্দ্রের অধিকাংশ কেন্দ্রে বিভিন্ন বয়েসের নারী পুরুষের লম্বা লাইন দেখা গেছে। সকাল ৮টার আগেই কয়েকটি ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। তবে বিএনপিসহ অন্যকোন দলের নেতা কর্মিদের উপস্থিতি কম দেখা গেছে। তবে প্রশাসনের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল চোখে পড়ার মত। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছিল বাড়তি নিরাপত্তা। এ পর্যন্ত কোন কেন্দ্রে বা কোন স্থানে কোন প্রকার সংঘর্ষের কোন খবর পাওয়া যায়নি। তবে কয়েকটি কেন্দ্রে ভোটারদের মধ্যে উৎসবের পরিবর্তে বিরাজ করেছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা।
নির্বাচনী অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৬৩ হাজার ৬শ’। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩১ হাজার ৫শ’ ৪০ ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৩২ হাজার ৬০ জন। পুরুষের তুলনায় মহিলা ভোটার ৫শ’ ২০ জন বেশী। এ আসনে প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত মোট ভোট কেন্দ্র ১০২টি এবং ভোট কক্ষের সংখ্যা ৫২৮টি। এ ছাড়া এ আসনে ১০২ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৫২৮ জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার হিসেবে ১ হাজার ৫৬ জন দায়িত্ব পালন করেছেন।
আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ আফিল উদ্দিন জানান, শার্শায় শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমূখর পরিবেশে ভাবে ভোট গ্রহণ হয়েছে। পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি। সবাই দলবদ্ধ ভাবে ভোট দিতে কেন্দ্রে চলে আসেন। নৌকার জয়ের ব্যাপারে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।
ধানের শীষের প্রার্থী মফিকুল হাসান তৃপ্তি অভিযোগ করে বলেন, ভোর থেকে সবকটি কেন্দ্র দখল করে নিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীরা। কোনো কেন্দ্রেই তার পোলিং এজেন্টদের প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী এসব প্রত্যক্ষ করলেও তারা নীরব ভূমিকা পালন করেছে।
এ ব্যাপারে শার্শার সহকারি রিটানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল জানান, শার্শা উপজেলায় শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমূখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। কোথায়ও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ভোটারদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্য করার মত। নির্বাচন নিয়ে আমার কাছে কেউ কোন অভিযোগ করেনি।