জেলার চার এমপিকে সংবর্ধনা দিল ১৪ দল


প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৬, ২০১৯ ||

পত্রদূত ডেস্ক: সাতক্ষীরার চার এমপিকে নাগরিক সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার বিকালে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। জেলা ১৪ দলীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটি এ সংবর্ধনার আয়োজন করে। ১৪ দলের আহবায়ক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদের সভাপতিত্বে সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা ৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. আ.ফ.ম রুহুল হক, সাতক্ষীরা ২ আসনের সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা ৪ আসনের সংসদ সদস্য এস.এম জগলুল হায়দার। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত সংসদ সদস্যরা বলেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে। শেখ হাসিনা সরকার উন্নয়নের সরকার। শেখ হাসিনা সরকার যেটা বলেছেন সেটা করেছেন। শেখ হাসিনা সাতক্ষীরার মানুষের জন্য না চাইতে অনেক কিছু দিয়েছেন। বক্তারা আরোও বলেন, শেখ হাসিনা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাদেরকে নৌকা প্রতিকে মনোনয়ন দিয়েছিলেন সাতক্ষীরার জনগন নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে ১৪ দলীয় নেতৃবৃন্দকে বিজয়ী করেছেন। সাতক্ষীরা এখন আর জঙ্গিবাদের ঘাটি নয়। সাতক্ষীরা এখন আওয়ামী লীগের ঘাটি। বক্তারা আরও বলেন, শেখ হাসিনা নিজেই ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় একটি করে বিশ^বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হবে। আর সাতক্ষীরায় যাতে বিশ^বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় সেজন্য আমরা কাজ করে যাবো। সাতক্ষীরায় রেল লাইন হবে, সুন্দরবনকে পর্যটনে রুপান্তরিত করা হবে, ভোমরা বন্দরকে আধুনিকায়ন করা হবে, সাতক্ষীরাকে সিটি কর্পোরেশনসহ সাতক্ষীরাকে আধুনিকায়ন করতে একসাথে কাধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। এ উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে কেউ যেন বাঁধাগ্রস্থ করতে না পারে সেজন্য সকলের সহযোগিতা অপরিহার্য।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ১৪ দলীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও দৈনিক দক্ষিণের মশাল পত্রিকার সম্পাদক অধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহী। অনুষ্ঠানে বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, বাংলাদেশের ওয়ার্র্কার্স পার্টি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মহিবুল্লাহ মোড়ল, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন লস্কর, বাংলাদেশ জাসদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ইদ্রিস আলী, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (এম এল) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান বাবু, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ফিরোজ আহমেদ, ত্রাণ ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক এড. আজহারুল ইসলাম, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস.এম শওকত হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবু সায়ীদ, জেলা যুবলীগের আহবায়ক মো. আব্দুল মান্নান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাজান আলী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক লায়লা পারভীন সেজুতি, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জহিরুল হক নান্টু, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদুজ্জামান রাশিসহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ ও ১৪ দলীয় নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়কারী এড. ফাহিমুল হক কিসলু। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করে দিপালোক একাডেমীর শিল্পীরা।