হাড়দ্দায় প্রতারক সাইফুল্লাহ’র খপ্পরে পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছে হাজারো মানুষ


প্রকাশিত : জানুয়ারি ২৭, ২০১৯ ||

দেবহাটা ব্যুরো: জেলার সীমান্তবর্তী হাড়দ্দাহ গ্রামে মরণব্যাধি ক্যান্সার সারানোর নামে ধইঞ্চাসহ বিভিন্ন বিষাক্ত গাছের পাতা ও শিকড় খাইয়ে হাজারো মানুষকে প্রতিনিয়ত সর্বশান্ত করার অভিযোগ উঠেছে সাইফুল্লাহ সরদার নামের এক প্রতারকের বিরুদ্ধে। প্রতারক সাইফুল্লাহ সরদার দেবহাটা-সাতক্ষীরা সদরের সীমান্তবর্তী হাড়দ্দাহ গ্রামের আব্দুল আজিজ সরদারের ছেলে। সম্প্রতি দেবহাটার চাঁদপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়ে বাঁচার আশায় প্রতারক সাইফুল্লাহর দেয়া বিষাক্ত গাছের পাতা ও শিকড়ের রস খেয়ে মারা গেলে ভুক্তভোগীদের মুখ থেকে বেরিয়ে আসতে শুরু করে প্রতারক সাইফুল্লাহর প্রতারণার তথ্য। স্থানীয়দের অভিযোগ, মাস ছয়েক আগেও দিনমজুর ছিলো সাইফুল্লাহ। কিন্তু দিনমজুরের কাজে সংসারে স্বচ্ছলতা না আসায়, প্রতারণার পথ বেছে নিয়ে রাতারাতি স্বপ্নে ক্যান্সারের গাঁছড়া ঔষধ পাওয়ার প্রচার চালিয়ে দিনমজুর থেকে সে হয়ে যায় প্রতারক সাইফুল্লাহ। এখন জিরো থেকে রাতারাতি হিরো সে। জেলার বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চল ও জেলার বাইরে থেকে প্রতিদিন বাঁচার আশা নিয়ে আসা মরণব্যাধি ক্যান্সারসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত এক থেকে দেড় হাজার মানুষকে ধইঞ্চাসহ বিভিন্ন বিষাক্ত গাছের পাতা ও শিকড় খাইয়ে মোটা অংকের টাকা নিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে সর্বশান্ত করে চলেছে অর্থলোভী এ প্রতারক। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ পেয়ে একবার সদর থানা পুলিশ প্রতারক সাইফুল্লাহর বাড়িতে গিয়ে তার অবৈধ ব্যবসা বন্ধসহ প্রতারক সাইফুল্লাহকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করলে পুলিশকে নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রতারণার টাকা ভাগবাটোয়ারার চুক্তিতে তাকে সেল্টার দেয়া শুরু করে নূর আলী, দিনইসলামসহ কয়েকজন স্থানীয় প্রভাবশালী। নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতারক সাইফুলের ঘনিষ্ট এক বন্ধু সাংবাদিককে জানায়, গভীর রাতে তাকে সাথে নিয়ে প্রতারক সাইফুল বাড়ির পাশের বাগান থেকে ধইঞ্চাসহ বিভিন্ন বিষাক্ত গাছের সাদা আঠালো পাতা, শিকড় তুলে এনে বেটে পেষ্ট করে। ভোররাত থেকে দিনব্যাপী বাড়ীর উঠানে লাইনে দাড়ানো হাজারো মানুষকে বিষাক্ত এসব পাতা ও শিকড়ের রস খাইয়ে মোটা টাকা হাতিয়ে নেয় সে। তার দেয়া এসব বিষাক্ত রস খেয়ে মরণব্যাধি ক্যান্সার তো দূরের কথা কোন অসুখই ভালো না হয়ে বরং বিষাক্ত রস খাওয়ার কারনে অসুখের মাত্রা বেড়ে গিয়ে দেবহাটার চাদপুরের একজনসহ অন্যান্য এলাকায় কয়েকজন ইতোমধ্যেই মারা গেছে বলেও জানায় সে। তথ্যানুসন্ধানে ও ভুক্তভোগীদের অভিযোগসহ দেয়া তথ্যে জানা জানা গেছে, সপ্তাহের প্রতি শনিবার-রবিবার ও সোমবার তিনদিনে মরণব্যাধি ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত তিন থেকে সাড়ে চার হাজার অসহায় সহজ সরল মানুষ বাঁচার আশায় চিকিৎসা নিতে এসে প্রতারক সাইফুলের খপ্পরে পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছেন প্রতিনিয়ত।