কলারোয়ায় এক পরিবারে ২জন প্রতিবন্ধী মানবেতর জীবন, সহযোগিতা কামনা


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯ ||

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ৫/৬জন সদস্যের একটি পরিবার, এরমধ্যে দুই জন প্রতিবন্ধী। কর্মক্ষম ব্যক্তি মাত্র একজন। তারও বয়স ৬০ ছুয়েছে। প্রতিবন্ধীদের চিকিৎসা তো দূরের কথা সংসারের ঘানি টানতেই হিমশিম খাচ্ছেন সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের পাকুড়িয়া ৬নং ওয়ার্ডের মাঠপাড়ার নজরুল ইসলাম (৬০)। নিজে রাজমিস্ত্রির কাজ করে কোন মতে সংসার চালিয়ে নিজের প্রতিবন্ধী কন্যা পপি খাতুন (১৯) ও ভাই রেজওয়ান (৩০)কে দেখা শুনা করছেন। ফলে স্বাভাবিকভাবেই হিমশিম খাচ্ছেন জীবনযাত্রা নির্বাহ করতে, কাটাচ্ছেন মানবেতর জীবনযাপন।

ষাটোর্দ্ধ নজরুল ইসলাম জানান, কন্যা ও ভাইয়ের নামে বরাদ্দকৃত প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা ৩মাস অন্তর ১৯শ’ টাকা করে পান। সেই টাকা দুই প্রতিবন্ধী সন্তান-ভাইয়ের চিকিৎসার কাজে কিছুটা হলেও সাহায্য করে। আর নিজের দিনমজুরের রোজগারের টাকায় কোনমতে সংসার চালাতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে। প্রতিবন্ধী ভাই’র অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। ধরে ধরে বসাতে হয়, নড়াচড়া করাতে হয়। প্রতিবন্ধী মেয়েটির অবস্থাও প্রায় একই। ঠিকমতো খাবার জোটাতে পারিনা বলে বাড়িতে কেউ আসলে তাদের দিকে ফ্যাল ফ্যাল করে চেয়ে থাকে, হাত বাড়িয়ে কিছু খেতে চায়। দুই প্রতিবন্ধীকে দেখলে চোখের পানি ধরে রাখা কঠিন।

অন্তত প্রতিবন্ধীদের ব্যয়ভার মেটাতে সমাজের বিত্তবানদের কাছে সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি।

ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, খায়রুল বাসারসহ স্থানীয় অনেকেই বিষয়টি নিশ্চিত করে অসহায় ওই পরিবারের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। সহযোগিতা ও যোগাযোগ: নজরুল ইসলামের, মোবাইল নাম্বার : ০১৭৪৯৯১৬৩৮২।