মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর জমি দখল করে নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রভাবশালী কর্তৃক এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর জমি জবর দখল করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন মৃত মুক্তিযোদ্ধা মোন্তাজ উদ্দিনের স্ত্রী মোছা. রাশিদা খাতুন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার পিতা ফজর আলীর মৃত্যর পর ওয়ারেশ সূত্রে আমি ৯৪ নং পলাশপোল মৌজায় এস,এ ১০০৬ নং খতিয়ানের ১১২৩৫ ও ১১২৩৬, ১১২৩৭, ১১২৩৮ দাগে মোট সম্পত্তির মধ্যে ৫ শতক জমি প্রাপ্য হয়েছি। এই জমির মধ্যে ২.৫০ শতক আমি বিক্রি করেছি। বাকি ২.৫০ শতক জমিতে গত ১৫ ফ্রেব্রুয়ারী আমি ঘর নির্মাণ করতে গেলে আমার আপন ভাই ইব্রাহিম হোসেন, তার ছেলে জাকির হোসেন ও জামাই জামায়াত কর্মী মিন্টুসহ অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন সন্ত্রাসী আমিসহ আমার সন্তানদের মারপিট করে জমি থেকে তাড়িয়ে দেয়। এসময় তারা আমার নির্মাণ করা প্রাচীর ভেঙ্গে ফেলে এবং ফের জমিতে এলে খুন জখম করার হুমকি দেয়।

তিনি আরো বলেন, আমার ভাইয়ের ছেলে জাকির হোসেন একজন মাদকাসক্ত ব্যক্তি। ফেন্সিডিলসহ সে একাধিকবার পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে। আমার ভাই একজন ভূমিদস্যু ও জাল দলিলের হোতা। আমাদের অন্য আরো একটি জমি নিয়ে তার সাথে আদালতে মামলা চলছে। ওই মামলায় তার জালিয়াতি প্রমানিত হয়েছে। ওয়ারেশ সূত্রে প্রাপ্ত ২৭৯৪ নং খতিয়ানের ১১৪৫৫ও ১১৪৫৬ দাগে প্রায় ৪.৫০ শতক জমি, যা আমি আমার ৩ ছেলে ও ১ ও মেয়ের নামে হেবা দলিল করে দিয়েছি। মামলাটি বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমি আমার ভাই বা অন্য কারো কাছে কোন জমি বিক্রি করিনি। কিন্তু সে জোরপূর্বক আমার জমি দখল করে নিচ্ছে এবং আমার সন্তানদের বিভিন্ন প্রকার ক্ষয়ক্ষতি করাসহ প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। তিনি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জমি আত্মসাতকারি ভূমিদস্যু ইব্রাহিম, তার ছেলে জাকির হোসেন ও জামায়াত কর্মী জামাই মিন্টুর শাস্তির দাবিতে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।