ঈগল কথা


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৯ ||

শাহ্নাজ পারভীন স্বপ্না
তুমি না হয় উপোষের ফুল হয়ে ফোটো।
ধোঁয়া ফুরিয়ে না যেতে শেকড় থেকে
তুলে এনে যত অশেকড় উপকথা পুড়িয়ে
অবশেষ সরিয়ে দিও। এরপর কোয়া
বীজে গড়ে যাও উদ্যান। যত মানুষ তত
দল। মানুষ যদি না মানো পাখি ফুল
মানো। ওরা বোকা নয় ঠিকই চিনে
নেবে সাধু সজ্জন!
নর্তক নর্তকীরও ভূমি দলান্ধেরও এই এক
ভূমি। সমাজ আছে বলে বাসভূমি সুখের
প্রমাদকানন সকলের। যার যেখানে তৃষ্ণা
সে সেখানেই উড়ে আপন বলাকায়। সকল
সত্যের এই এক কুপুত্র স্বভাবে রঙে।
আছে কেশবন্ধন রাজকীয় ভাব জোছনার
কথা বলে নিয়ে যায় দাহে। সেইজন অপর
কেহ নন মনের ভিতর স্বয়ং তুমি মহিম
যখন যেমন চাও ।
তার কথা ভেবে
একটা খাঁজে এসে থেমে যাও। দেখো, তুমি
দ্বিধাবিভক্ত। তোমারও আছে দুইপিঠ
মতিডাঙার ঢেউ ঈগল আর বায়স পাখির
ঠোঁট। তুমিও খুবলে খাচ্ছ গোত্রে গোত্রে
চামড়া সরেস।
এবার চুপ হয়ে যাও দেখো প্রশান্ত আত্মার
অনুনয় মিনতি, মিলিয়ে নাও তোমাকে
সাধু না ভাবার তফাৎ ফুল পাখির! বুঝে
নাও প্রশান্ত আত্মা ছাড়া মানুষের ঠোঁটে
থাকে কিছু বিভ্রান্তি ঈগল কথা।
গুরুদক্ষিণা দেওয়ার আগে গুরুকে চেনো।