তুজলপুরে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা পেলেন শতাধিক রোগী


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাকার অভাবে রোগ যন্ত্রণা নিয়ে নিয়ে দিন পার করছি। মাথা ঘুরায়। চোখে কম দেখি। গায়ে জোর পাই না। সকালে শুনলাম তুজলপুর কৃষকক্লাবে বড়  ডাক্তার আসছে। ডাক্তার কোন টাকা নেবে না। তাই আর বাড়ি থাকতি পারিনি। ডাক্তার দেখালাম। খুশি আমি। বিনামূল্যে ডাক্তার দেখাতে এসে এমন কথা বলছিলেন সদর উপজেলার তুজলপুর গ্রামের গৃহবধু সখিনা খাতুন। খাওয়ার চাহিদা নেই। পেটভরে খেতে পারিনা। মুখে রুচি নেই। প্রচন্ড গ্যাস। শরীর আর চলে না।  এমন কথা বলছিলেন সদর উপজেলার আখড়াখোলা গ্রামের মুজিবর রহমান (৬০)। সদর উপজেলার তুজলপুর কৃষক ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রহমান জানান, গাছের পাঠশালা, কৃষি হাসপাতাল ও বীজ ব্যাংকের  আয়োজনে  বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবার আয়োজন করা হয়। শনিবার কৃষকক্লাবের অফিস রুমে রোগি দেখেন মেডিসিন, ডায়েবেটিস, বাতব্যথা রোগের বিশেষজ্ঞ এমবিএসএস (বারডেম) ডাক্তার মিনাক কুমার  বিশ্বাস। বিকাল তিনটা থেকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন রাত ৭টা পর্যন্ত। শতাধিক রোগির চিকিৎসা প্রদান করা হয় বিভিন্ন রোগের। তিনি জানান, বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা উদ্বোধন করেন সাতনদী পত্রিকার সম্পাদক হাবিবুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পাপড়ি এগ্রো লি: এর পরিচালক এম মাসুদুর রহমান, ঝাউডাঙ্গা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়দেব ঘোষ, মেডিকেল প্রমোশন অফিসার আনোয়ার হোসেন, চিকিৎসক সহকারি সুদিপ্ত, সরুপ, মৃদূল ও সাংবাদিক ইয়ারব হোসেন।