কলারোয়া টর্নেডোর আঘাতে ল-ভ-: একজনের মরদেহ উদ্ধার


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯ ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: ঘুর্ণিঝড় টর্নেডোর আঘাতে ল-ভ- হয়েছে কলারোয়ার বিস্তীর্ণ এলাকা। শিলাবৃষ্টি ও ঘুর্ণিঝড়ে জামশেদ আলী (৮০) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে জানিয়েছেন কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান। তার বাড়ি উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়নের খাসপুর গ্রামে। মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে কলারোয়ার লোহাকুড়া কানিপাড়া এলাকার একটি মাঠ থেকে তার মৃত দেহ উদ্ধার হয়। মঙ্গলবার সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে হঠাৎ ফাগুনের আকাশে সন্ধ্যা নেমে আসে। ঘন মেঘে ঢেকে যায় আকাশ। শুরু হয় ঘুর্ণিঝড়। সাথে শিলাবৃষ্টি। ৫ থেকে ১০ মিনিটের এ ঘুর্ণিঝড়ে গাছ-গাছালি, বাড়ি-ঘর, ইটভাটা, বিভিন্ন শিক্ষা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঝড়ের তান্ডবে স্থবির হয়ে পড়ে জনজীবন।
সরেজমিনে দেখা যায়, পৌরসভাসহ উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ঘরবাড়ি, দোকানপাটের টিনের ছাউনি বা টিনের চাল ও খোলার ছাউনি উপড়ে গেছে। অনেকস্থানে দেয়াল ভেঙে পড়েছে। ডালপালা ভেঙে পড়ার পাশাপাশি ছোট-বড় গাছ উপড়ে গেছে। ফসলের জমি ও আমের মুকুল ও সজিনার ফুল ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিভিন্ন ইটভাটায় তৈরিকৃত কাচা মাটির ইট সম্পূর্ণ বিনষ্ট হয়েছে। বিদ্যুতের তার ছিড়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট ও খেলার মাঠসহ বিভিন্ন স্থানে পানি জমে যায়।
ঝড়ের আগে থেকেই কলারোয়ায় বিদ্যুত সরবরাহ ছিলো বন্ধ।
কলারোয়া বাজারের ব্যবসায়ী আজহারুল ইসলাম আজা জানান, সকালের ঝড়ে তারা দোকানের টিনের ছাউনি উড়ে গেছে। ফলে খোলা আকাশের নিচে বৃষ্টিতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
উপজেলার কয়লা ইউনিয়নের রাণী ব্রিকসের মালিক কামরুল ইসলাম সাজু জানান, প্রস্তুতকৃত কাচা ইট, স্তুপাকৃত মাটি বৃষ্টির পানিতে বিলীন হয়ে গেছে। ইট তৈরির চুল্লিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অসময়ের এই ঝড়-বৃষ্টিতে তিনি কয়েক লাখ টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন বলে দাবি করেন।
তুলশীডাঙ্গার এক বাসিন্দা জানান, তুলশীডাঙ্গা গোগ মন্দিরের সামনে বড় বটগাছটি গোড়া থেকে উপড়ে গিয়ে উল্টে গেছে।
মুক্তিযোদ্ধা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুল্লাহ জানিয়েছেন, বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষ ও শ্রেণিকক্ষের চাল উড়ে গিয়েছে এবং ঝড়ে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে অনির্দিষ্টকালের জন্য অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে দেড়শতাধিক শিশুর পাঠদান।
ঝড়ের পর ক্ষয়ক্ষতির খবর পেয়ে প্রশাসনের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা এলাকা পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে।