মানববন্ধনে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী কবিরকে সাতক্ষীরায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিনিধি: সংবিধান বহির্ভূত অবৈধ কমিটি বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টায় জাতীয় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সংস্থা, সাতক্ষীরা জেলা শাখার আয়োজনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি শফিকুল ইসলাম।
বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, জেলা ভূমিহীন সমিতির সভাপতি কওছার আলী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ, জাহিদ হোসেন, সাইদুল ইসলাম, আব্দুল আহাদ, রেহেনা পারভীন, নুর জাহান খাতুন প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, জাতীয় অন্ধ সংস্থার নাম পরিবর্তন হয়ে জাতীয় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী সংস্থা হয়েছে। ওই জেলা কমিটিতে শেখ আবুল কালাম দীর্ঘ ২৫ বছর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। কোন সংস্থার নাম পরিবর্তন হলে নিয়মানুয়ায়ী পূর্বের কমিটিই বহাল থাকে। প্রতিবন্ধী কবির হোসেন কখনো জাতীয় অন্ধ সংস্থার সদস্য ছিলো না, বর্তমানেও নেই। সংগঠনের ১৯নং ধারা মোতাবেক জেলা কমিটি গঠিত হবে নির্বাচনে মাধ্যমে। তাহলে কবির সদস্য না হয়ে গঠনতন্ত্রের তোয়াক্কা না করে কিভাবে নিজেকে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সংস্থার জেলা কমিটি সাধারণ সম্পাদক দাবি করেন?।
বক্তারা মিথ্যা বানোয়াট তথ্য প্রদানকারী কবিরের ভূয়া কমিটি বাতিলপূর্বক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান এবং কবির হোসেনকে সাতক্ষীরায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন।

কালিগঞ্জে ট্রাক চাপায় ব্যবসায়ী নিহত: চালক আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি: কালিগঞ্জে ট্রাক চাপায় শেখ নুর ইসলাম (৭০) নামের এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। তিনি কালিগঞ্জ উপজেলার ছনকা গ্রামের মৃত এবাদুল্লাহ শেখের ছেলে। বুধবার বিকালে কালিগঞ্জ উপজেলার নাজিমগঞ্জ বাজারে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।
এদিকে, এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক ট্রাকসহ চালক রিপন হোসেনকে আটক করেছে। আটক রিপন হোসেন (৩০) দেবহাটা উপজেলার বহেরা গ্রামের একরাম কবিরের ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, ব্যবসায়ী নুর ইসলাম বিকালে কালিগঞ্জ উপজেলার নাজিমগঞ্জ বাজারে রাস্তা পার হয়ে ব্যাংকে যাচ্ছিলেন। এ সময় দিনি দ্রুতগামী একটি ট্রাকের চাপায় তিনি গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।
কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জেলায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেপ্তার ৬০

নিজস্ব প্রতিনিধি: জেলাব্যাপী পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে এক মাদক ব্যবসায়ীসহ ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ বেশ কিছু মাদকদ্রব্য। এ সময় তাদের বিরুদ্ধে ৮টি মামলা দায়ের করা হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে বুধবার সকাল পযর্ন্ত জেলার আটটি থানার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে সাতক্ষীরা সদর থানা থেকে ১৪ জন, কলারোয়া থানা থেকে ৬ জন, তালা থানা থেকে ৫ জন, কালিগঞ্জ থানা থেকে ৯ জন, শ্যামনগর থানা থেকে ৭ জন, আশাশুনি থানা থেকে ৮ জন, দেবহাটা থানা থেকে ৩ জন ও পাটকেলঘাটা থানা থেকে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক আজম খান জানান, গ্রেপ্তারকৃদের বিরুদ্ধে মাদক ও নাশকতাসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা রয়েছে।

আবু আহমেদকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী ফোরাম

জেলা বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী ফোরামের নেতৃবৃন্দর পক্ষ থেকে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। বুধবার সন্ধায় দৈনিক কালের চিত্র অফিসে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান জেলা বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী ফোরামের সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও জেলা সভাপতি আব্দুল আলিম, সহ-সভাপতি রোকন উদ্দীন, আব্দুস সামাদ, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, যুগ্ম-সম্পাদক রবিউল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক মোচ্ছাক সরদার, খায়রুল ইসলাম বাবু, সুমন হোসেন, আক্তার হোসেন বয়াতীসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

৩৩ বিজিবির অভিযানে চোরাচালান আটক

পত্রদূত ডেস্ক: সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবির অভিযানে চোরাচালান আটক হয়েছে। আটক চোরাচালানের মধ্যে রয়েছে ভারতীয় ফেন্সিডিল, চা পাতা, বাই সাইকেল ও গরুর মাংস। এসময় একজন বাংলাদেশী নাগরিক (ধুর) আটক করা হয়। ২৬ ফেব্রুয়ারি তলুইগাছার আমতলা পোস্ট এলাকায় দিয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশ হতে ভারতে প্রবেশকালে মো. জাকির হোসেন (২২) নামক ১ জন বাংলাদেশী নাগরিককে আটক করে। অপর দিকে ২৭ ফেব্রুয়ারি মজুমদার ব্রীজ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ৫০ কেজি ভারতীয় চা-পাতা আটক করে। ২৬ ফেব্রুয়ারি ভাদিয়ালী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ৬০ কেজি ভারতীয় চা-পাতা আটক করে। কেড়াগাছি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ৯০ কেজি ভারতীয় চা-পাতা ও ১ টি বাই সাইকেল আটক করে। ২৭ ফেব্রুয়ারি দেবদারু বাগান নামক এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ৫০ কেজি এবং ভাদিয়ালী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ৫০ কেজি ভারতীয় চা-পাতা আটক করে বিজিবি। এছাড়া ঘোষপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মালিকবিহীন ৬ বোতল ফেন্সিডিল আটক করে।

হাড়দ্দহা মডেল প্রাইমারি স্কুলে ম্যানেজিং কমিটির মতবিনিময়

সীমান্ত প্রতিনিধি: বুধবার বিকালে হাড়দ্দহা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সাথে শিক্ষকদের শিক্ষার মান উন্নয়নে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এসএম আকবার হোসেন। উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি মো. আসাদুল হক (সাংবাদিক), ডা. আব্দুর রউফ, আছাদুজজামান পলাশ, খলিলুর রহমান ইউনুস আলী, জিয়াদ আলী, ফজলুর রহমান, প্রধান শিক্ষক আবুসেলিম সাজু, মেহেরুন নেছা, চঞ্চল মন্ডল, সাহাদাত হোসেন জিয়াউর রহমান, রাইসুল ইসলামসহ সকল শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্য।

তৃণমূল পর্যায়ে ক্রীড়া প্রতিভা অন্বেষণে বিকেএসপি’র জেলা পর্যায়ে খেলোয়াড় বাছাই

আব্দুর রহিম: তৃণমূল পর্যায়ে ক্রীড়া প্রতিভা অন্বেষণ ও নিবিড় প্রশিক্ষণ কার্যক্রম ২০১৯ জেলা পর্যায়ে খেলোয়াড় বাছাই কর্মসূচি খুলনা ও বরিশাল জোনের খেলোয়াড় বাছাই অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)’র আয়োজনে ১৭টি ইভেন্টে সাতক্ষীরা জেলার খেলোয়াড় বাছাই করা হয়। বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) দেশের ৬৪টি জেলা থেকে ১৭টি ইভেন্টে ৮ থেকে ১২ বছর বয়সী ও ১২ থেকে ১৪ বছর বয়সী ১ হাজার জন খেলোয়াড় বাছাই করা হবে। খুলনা ও বরিশাল বিভাগে ১৬টি জেলায় এ বাছাই কার্যক্রম চলছে। বাছাই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)’র জিমন্যাস্টিক্স কোচ ও দলনেতা আব্দুর রউফ, সাঁতার সি-কোচ সাঈদ আহমেদ, ফুটবল কোচ আব্দুল্লাহ আল মতিন, জুডো কোচ জাহাঙ্গীর আলম রনি, ক্রিকেট কোচ ডলি দাস, শ্যুটিং কোচ জাহিদ হাসান, এ্যাথলেটিক্স কোচ জয়নাল আবেদীন, বক্সিং কোচ সামির উদ্দিন, ফুটবল কোচ মো. ফারুক হোসেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্য মো. রুহুল আমিন, কাজী কামরুজ্জামান, খন্দকার আরিফ হাসান প্রিন্স, মো. আলতাপ হোসেন, সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)’র কর্মকর্তা ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা শহরের কামালনগরে পৌরসভার জায়গা দখলের হিড়িক! রাজমিস্ত্রী আহাদ আলীর খুটির জোর কোথায়, মেয়রের নোটিশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি

এম জিললুর রহমান: অবৈধভাবে পৌরসভার জায়গা দখলের যেন প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। পৌর মেয়রের আইনি নোটিশের তোয়াক্কা করছেন না কেউ। এমনকি তোয়াক্কা করছেন না রাজমিস্ত্রী আহাদ আলীও। ফলে জায়গা দখলের এ প্রতিযোগিতার দায়ভার নেবে কে? ইতোমধ্যে এ প্রশ্ন উঠেছে সচেতন মহলে।
সাতক্ষীরা পৌর এলাকার ৮নং ওয়ার্ড কামালনগর গ্রামের ভিতর দিয়ে বাইপাস সড়ক যাওয়ায় এবং তুফান কনভেনশন সেন্টার ও লেকভিউ এর মত বড় প্রতিষ্ঠান হওয়ার কারণে এই এলাকা যেন রাতারাতি বেশ জনবহুল হয়ে উঠেছে। গত ইং ৪-১১-১৮ তারিখে পৌরসভা থেকে এন্তাজ আলীর পুত্র রাজমিস্ত্রি আহাদকে নোটিশ দিয়ে পৌরসভার জায়গা ছেড়ে প্রাচীর নির্মাণের জন্য বলা হলেও তিনি তা কোন রকম তোয়াক্কা না করে রাস্তার জায়গা দখল করে পাকা প্রাচীর নির্মাণ করেছেন।
এলাকাবাসি এ বিষয় নিয়ে কথা বললে তিনি দাক্তিকতার সাথে বললেন, কাউন্সিলর ও মেয়র আমার কিছু করতে পারবেনা, তোমরা বেশি ঝামেলা করোনা আমি সব ঠিক করে এসেছি। এ বিষয়ে ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি জানান, সামনে কে এফ ডাব্লিউ এর কাজ হবে আর সেই জন্য ড্রেন ও রাস্তা করব তাই সবাই কে নোটিশ করি এবং পৌর সার্ভেয়ার দিয়ে মেপে দেখি এখানে পৌরসভার অনেক জায়গা এলাকার মানুষ দখল করে রেখেছে।
পরবর্তিতে তাদেরকে নোটিশ করেছিলাম ভেঙে ফেলার জন্য, তবে কেউ যদি না ভাঙে আমরা পরবর্তিতে অবশ্যই ব্যবস্থা নেব। এদিকে পৌরসভার জায়গা দখল করে প্রাচির দেওয়ার বিষয়ে আহাদ আলী মিস্ত্রির সাথে কথা হলে তিনি বলেন, পৌরসভা থেকে মৌখিক অনুমতি নিয়ে প্রাচির দিয়েছি। কে কি বলল বা সাংবাদিকরা কি লিখল আমার যায় আসেনা। এবিষয়ে এলাকার মানুষের সাথে কথা হলে তারা বলেন, পৌরসভা নোটিশ দিলে সবাই একটু গোপনে যোগাযোগ করে। ফলে কিছুদিন কাজ বন্ধ থাকলেও আবার তা শুরু হয়। বর্তমানে দখলদার আহাদ আলীর বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসি জেলা প্রসাশকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

একান্ত সাক্ষাতকারে ঘোষ সনৎ কুমার পুনরায় নির্বাচিত হতে পারলে দলমত নির্বিশেষে জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করে যাব

মুজিবর রহমান, পাটকেলঘাটা: পুনরায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে পারলে দলমত নির্বিশেষে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে সকল উন্ন্য়নমূলক কর্মকান্ডকে গতিশীল করতে কাজ করে যাব। মাদক সন্ত্রাস, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে জনগণকে সাথে নিয়ে কাজ করে যাব। তালা উপজেলাকে মডেল উপজেলায় রুপান্তরিত করা হবে। যতদিন রাজনীতি করব, ততদিন জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করে যাব। বুধবার একান্ত সাক্ষাতকারে তালা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ঘোষ সনৎ কুমার এসব কথা বলেন। জানা গেছে, তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতা ঘোষ সনৎ কুমার টানা তৃতীয়বারের মত দলীয় সমর্থন পেয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালা উপজেলা পরিষদের দু’বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান। তালার তৃণমূলের আস্থাভাজন এই আওয়ামী লীগ নেতার রাজনৈতিক কর্মকান্ড অত্যন্ত চমকপ্রদ। একান্ত সাক্ষাতকারে তিনি তার রাজনৈতিক কর্মকান্ড তুলে ধরে বলেন, ১৯৭৫ সালে ছাত্রজীবন থেকে রাজনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত থেকে সুনামের সহিত দলকে নেতৃত্ব দিয়ে এসেছেন। প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে তার ছিল অগ্রনী ভুমিকার কথা বলেন। নেতৃত্ব প্রদানকালে জেল জুলুম অত্যাচার সহ্য করে তালার সাধারণ নেতাকর্মীদের মাঝে জনপ্রিয় নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। ১৯৭৮ সালে তালা বিদে উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৮০ সালে তালা কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৮২ সালে তালা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি, ১৯৮৩ সালে তালা থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ৮৬ থেকে ৯৬ সাল দীর্ঘদিন তালা থানা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৬ সাল থেকে অদ্যাবধি তিনবার তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দলকে সুসংগঠিত করে রেখেছেন। ২০০৯ ও ২০১৪ সালে তালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। ১৯৮৫ সাল থেকে তালা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ১৯৯০ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তালা উপজেলা হিন্দুবৌদ্ধ খ্রীষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বিভিন্ন কলেজ মাদরাসা ও বিদ্যালয়সহ বহু সংগঠনের সভাপতির পদে অধিষ্ঠিত আছেন। জনপ্রিয় এই নেতা ১৯৯০ সালে এরশাদ বিরোধী আন্দোলন ও ও ২০১২ সালে জামাত বিএনপির নির্যাতনের শিকার হয়ে অনেকবার কারাবরণ করেছেন। তিনি আগামী ২৪ মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সকলের দোয়া ও সমর্থন কামনা করেছেন।

পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নারীসহ দুইজন নিহত

পত্রদূত ডেস্ক: পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নারীসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। বুধবার সন্ধ্যায় দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ও বিকালে কালিগঞ্জ উপজেলার নাজিমগঞ্জ এলাকায় এ দুর্ঘনা দুটি ঘটে।
নিহতরা হলেন, দেবহাটা উপজেলার বহেরা গ্রামের হযরত আলীর স্ত্রী সাবিকুন নাহার (২৬) ও কালিগঞ্জ উপজেলার ছনকা গ্রামের মৃত এবাদুল্লাহ শেখের ছেলে ব্যবসায়ী নুর ইসলাম (৭০)।
দেবহাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা জানান, সাতক্ষীরা থেকে ছেড়ে আসা কালিগঞ্জ গামী একটি বাস পথিমধ্যে দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া গার্লস স্কুলের সামনের পৌছালে একটি মটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মটরসাইকেল আরোহী সাবিকুন নাহার নিহত হন।
অপরদিকে, কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান হাফিজুর রহমান জানান, ব্যবসায়ী নুর ইসলাম বিকালে কালিগঞ্জ উপজেলার নাজিমগঞ্জ বাজারে রাস্তা পার হয়ে ব্যাংকে যাচ্ছিলেন। এ সময় তিনি দ্রুতগামী একটি ট্রাকের চাকায় পিষ্ট গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

দিনভর বসন্ত বৃষ্টিতে ভোগান্তি

পত্রদূত ডেস্ক: দিনভর বৃষ্টিতে ভোগান্তি বজ্রমেঘের সৃষ্টির কারণে বুধবার সকাল থেকে সাতক্ষীরাসহ দেশের বেশিরভাগ জায়গায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে চরম ভোগান্তি শিকার হচ্ছে সাতক্ষীরাবাসি। এদিকে ভারী বৃষ্টিতে জেলার নিম্নাঞ্চলে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। আবহাওয়ার এই অবস্থায় সাগরে তিন নম্বর স্থানীয় ও নদী বন্দরগুলোতে দুই নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবারও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে।
বুধবার ভোর থেকে ভারী বৃষ্টি শুরু হওয়ায় অফিসগামী মানুষ, শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়ে। সকালে অনেককেই যানবাহনের জন্য রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পর কেউ কেউ গাড়িতে উঠতে পারলেও বাকিরা উপায় না দেখে হেঁটেই নিজ নিজ গন্তব্যে রওনা দিতে দেখা গেছে। এদিকে সকালের বৃষ্টিতে বিভিন্ন রাস্তায় পানি জমে যায়। এতে ভোগান্তির পরিমাণ আরও বেড়ে যায়।
দুপুরের দিকে বৃষ্টির পরিমাণ কমে আসলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আকাশ কালো মেঘে ঢেকে যায়। এরপর বিকাল সাড়ে ৪টা নাগাদ মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। ফলে অফিস ফেরত মানুষ ফের ভোগান্তিতে পড়ে। সারাদিন বৃষ্টির কারণে পরিবহনের সংখ্যা রাতে আরও কমে যায়। একদিকে যানবাহন সংকট অন্যদিকে পানি জমে যাওয়ায় ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করে।
সাতক্ষীরা আবহাওয়া অফিসের উচ্চমান পর্যক্ষেক জুলফিকার আলী রিপন জানান, মঙ্গলবার রাত ৯টা থেকে বুধবার রাত ৯টা পর্যন্ত জেলায় ২৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সাতক্ষীরায় বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিলো ৬ মিলিমিটার।
তিনি আরও বলেন, ‘পশ্চিমা লঘুচাপের প্রভাবে আকাশে বজ্রমেঘের সৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। চার সমুদ্র বন্দরে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।’
এদিকে আবহাওয়ার ২৪ ঘন্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে বিচ্ছিন্নভাবে মাঝারি থেকে ভারী বর্ষণ ও শিলাবৃষ্টি হতে পারে।
সামুদ্রিক সতর্ক বার্তায় বলা হয়, বজ্রমেঘের ঘণঘটা বৃদ্ধির কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমূদ্র বন্দরগুলোকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।
দিনভর বৃষ্টিতে ভোগান্তি অন্যদিকে আবহাওয়ার এক নৌ সতর্ক বার্তায় বলা হয়, টাঙ্গাইল, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, পাবনা, বরিশাল, কুমিল¬া, পটুয়াখালী, ময়মনসিংহ এবং সিলেট অঞ্চলগুলোর ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে দুই নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নকারীর গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরায় চতুর্থ শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নকারী রানা শেখের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। বুধবার সকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে দ্যা পোল স্টার পৌর হাইস্কুলের শিক্ষক ও ছাত্র ছাত্রীরা এ মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করে।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, দ্যা পোল স্টার পৌর হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক অনামীকৃষ্ণ মন্ডল, স্কুলের প্রাথমিক শাখার প্রধান শিক্ষক রবিউল ইসলাম, শিক্ষক মিতুন নাহার, রেহেনা পারভীন, ইতা রাহা, দীপক কুমার মৃধা, আমজাদ হোসেন, কবিতা সাহা, মিনতী রানী, ছাত্র সুজিত, ছাত্রী বিথীকা প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি দ্যা পোল স্টার পৌর হাইস্কুলের ছাত্রী শহরের সুলতানপুর খালধারে খেলা করছিল। এ সময় ইটাগাছা কামারপাড়া এলাকার আজাদ শেখের পুত্র রানা শেখ মেয়েটিকে ফুসলিয়ে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর তাকে বাথরুমের ভিতরে নিয়ে যৌন নিপীড়ন করে। তার চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে আসলে লম্পট রানা শেখ পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হলেও পুলিশ আজও কোন ব্যবস্থা নেয়নি। বক্তারা এ সময় লম্পট রানা শেখকে গ্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির জোর দাবি জানান। এসময় দ্যা পোল স্টার পৌর হাইস্কুলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

ইটাগাছার ফল ব্যবসায়ী মনিরুলকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রতিপক্ষ ব্যবসায়ীর দ্বারা সাতক্ষীরার ইটাগাছা হাটের মোড়ের ফল ব্যবসায়ী শেখ মনিরুল ইসলামকে মাদকসহ বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানির করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠেছে। তিনি এ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে শহরের ইটাগাছা এলাকার মৃত শেখ আব্দুর রউফের ছেলে ফল ব্যবসায়ী শেখ মনিরুল ইসলাম তার লিখিত বক্তব্যে জানান, তিনি দীর্ঘ ৩০ বছর যাবত সুনামের সাথে শহরের ইটাগাছা হাটের মোড়ে ফলের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। সম্প্রতি তার দোকানের পাশে আশাশুনি উপজেলার গাজীপুর এলাকার মৃত বছির উদ্দীন গাজীর ছেলে মোমিনুর রহমান মুকুল একটি ফলের দোকান করেছেন। ব্যবসা শুরু করার পরপরই তিনি হিংসার বশবর্তী হয়ে মনিরুলকে ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র চালাতে থাকেন। যাতে মনিরুল ব্যবসা বন্ধ করে দেয় এবং মুকুল একচেটিয়া ব্যবসা করতে পারেন। এরই জের ধরে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি মোমিনুর রহমান মুকুল নিজেই মনিরুলের দোকানে এক পোটলা গাজা রেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মনিরুলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এরপর পুলিশ স্থানীয়দের কাছে খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারে এটি একটি সাজানো নাটক। অত:পর পুলিশ মনিরুলকে মুক্তি দেন।
তিনি আরো বলেন, ওই কুচক্রী মুকুল আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে না পেরে এখন ভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন। তিনি বর্তমানে আমাকে বিভিন্ন পেন্ডিং মামলায় জড়িয়ে দেয়ার পায়তারা করছেন বলে আমি গোপন সূত্রে জানতে পেরেছি। তিনি বলেন, আমি একজন শান্তি প্রিয় অসহায় গরীব ছোট ব্যবসায়ী। আমাকে এভাবে বারবার হয়রানী করা হলে আমি ব্যবসায়িকভাবে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হবো। এতে করে আমার পরিবার পরিজন অর্থকষ্টে ভুগবেন। কিন্তু এই মুকুল অন্যায় লোভ ও লাভের বশবর্তী হয়ে আমাকে সর্বশান্ত করার জন্য এ ধরণের ন্যাক্কারজনক ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছেন।
এমতাবস্থায় তিনি তার প্রতিপক্ষ ফল ব্যবসায়ী মুকুলের হাত থেকে রক্ষা পেয়ে যাতে শান্তিপূর্ণভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারেন সেজন্য তিনি সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

তালায় গ্রাম আদালতের দিকে ঝুকছে সাধারণ মানুষ

তালা প্রতিনিধি: স্বল্প সময় অল্প খরচে ন্যায় বিচার পাওয়ায় জন্য তালা উপজেলার ১২াট ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ এখন গ্রাম আদালতের দিকে ধাবিত হচ্ছে।
খবরে প্রকাশ, উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ হয়েছে ৬২টি, নিষ্পত্তি হয়েছে ৬১টি, চলমান রয়েছে ১টি। নগরঘাটা ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ হয়েছে ৮৩, নিষ্পত্তি হয়েছে ৭৮টি, চলমান রয়েছে ৫টি। সরুলিয়া ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ হয়েছে ৮৩টি, নিষ্পত্তি হয়েছে ৮০টি, চলমান রয়েছে ৩টি। কুমিরা ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ হয়েছে ১২৩টি, নিষ্পত্তি হয়েছে ১২২টি, চলমান রয়েছে ১টি। তেতঁলিয়া ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ হয়েছে ১৪০টি, নিষ্পত্তি হয়েছে ১৩৩টি, চলমান ৭টি। তালা সদর ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ হয়েছে ৮১টি, নিষ্পত্তি হয়েছে ৭৭টি, চলমান রয়েছে ৪টি। ইসলামকাটি ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ ৫২টি, নিষ্পত্তি ৫২টি। মাগুরা ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ ১০৬টি, নিষ্পত্তি ১০১টি, চলমান ৫টি। খলিষখালী ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ ৮৭টি, নিষ্পত্তি ৮৭টি। খেশরা ১১৫টি, নিষ্পত্তি ১১২, চলমান ৩টি। জালালপুর ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ ১৪৪টি, নিষ্পত্তি ১৪৪টি। খলিলনগর ইউনিয়নে মামলা গ্রহণ ৭৬টি, নিষ্পত্তি ৬৯টি, চলমান৭টি। মোট ১২টি ইউনিয়নে ২০১৯ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত মামলা হয়েছে ১১৫২টি, নিষ্পত্তি ১১১৬টি, চলমান রয়েছে ৩৬টি মামলা।
উপজেলা সমন্বয়কারী ইউনুচ আলী জানান, উপজেলায় সাধারণ মানুষ গ্রাম আদালত কার্যক্রমের দিকে ঝুকছে বেশি। যা অন্য উপজেলার তুলনায় একটু বেশিই সচল হচ্ছে।
তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীন জানান, অল্প সময়ে সল্প খরচে ন্যায় বিচারের জন্য সাধারণ মানুষ এখন গ্রাম আদালতের দিকে ঝুকছে ও বেশি উপকৃত হচ্ছে। তাই গ্রাম আদালত আরও চলমান রাখলে সাধারণ মানুষের জন্য সুবিধা হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদককে পৌর তরুণলীগের শুভেচ্ছা

আওয়ামী তরুণলীগের নবগঠিত পৌর কমিটির নেতৃবৃন্দের পক্ষ থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক এবং জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। বুধবার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির নিজস্ব বাসভবনে উপস্থিত হয়ে নেতৃবৃন্দ এ শুভেচ্ছা জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী তরুণলীগ জেলা শাখার সভাপতি শাহানুর ইসলাম শাহিন, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) বিদ্যুৎ বিশ^াস, উপজেলা সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান মামুন, সাধারণ সম্পাদক আনিকুল ইসলাম, পৌর সভাপতি মো. বাবলুর রহমান, সহ-সভাপতি মো. কামরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, দপ্তর সম্পাদক ফয়সাল প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি