মুক্তিপণের টাকা বদহজম জেলেদের ফেরত দিলেন বন কর্মকর্তা মহসিন


প্রকাশিত : মার্চ ১৫, ২০১৯ ||

শ্যামনগর (সদর) প্রতিনিধি: পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে জেলেদের জিম্মি করে আদায়কৃত মুক্তিপণের টাকা বদহজম হয়েছে বন কর্মকর্তা মহসীন আলমের। জেলেদের কাছ থেকে নেয়া টাকা ফেরত দিয়েছেন পুষ্পকাঠি বন টহল ফাঁড়ির অফিস ইনচার্জ (ওসি) মহসিন আলম। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় ঘটনা তদন্তকারী কর্মকর্তা বুড়িগোয়ালিনী বন স্টেশন অফিসার (এসও) কেএম কবীর উদ্দীনের উপস্থিতিতে ভুক্তভোগী জেলে সোহরাবের হাতে মুক্তিপণের ২৮ হাজার টাকা তুলে দেয় ওসি মহসিন। গত ৩ মার্চ সুন্দরবনে পুষ্পকাটি এলাকায় মাছ ধরার সময় ওসি মহসিন আলমের নেতৃত্বে অপর সদস্যরা মুক্তিপণের দাবিতে ৪ জেলেকে অপহরণ করে। মুক্তিপণের ৫০ হাজার টাকার মধ্যে ২৮ হাজার টাকা পরিশোধ করলে জেলেদের মুক্তি দিলেও বাকি ২২ হাজার টাকার জন্য জেলেদের ব্যবহৃত নৌকা ও জাল আটকে রাখে মহসিন।
ভুক্তভোগী জেলে সোহরাব প্রতিকার চেয়ে সাতক্ষীরা সহকারি বন সংরক্ষক (এসিএফ) রফিক আহম্মেদ বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরে এক সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত টিম গঠন করা হয়। বিষয়টি পত্র-পত্রিকায় প্রকাশের জের ধরে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। উপায়ান্তর না পেয়ে ওসি মহসিন আলম মুক্তিপণের ২৮ হাজার টাকা জেলেদের ফেরত দিতে বাধ্য হয়।
তদন্তকারী কর্মকর্তা এসও কেএম কবীর উদ্দীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ২৮ হাজার টাকা জেলেদের ফেরত দেওয়া হয়েছে। মহসিনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে সুপারিশ করা হয়েছে। সাতক্ষীরা সহকারি বন সংরক্ষক (এসিএফ) ঘটনার সত্যতা স¦ীকার করেন। খুলনা বিভাগীয় বন সংরক্ষক (ডিএফও) বশিরুল আল মামুন বলেন, দুর্নীতি পরায়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।