দেবহাটা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আজ, তিন পদে ১৪ প্রার্থী


প্রকাশিত : মার্চ ২৪, ২০১৯ ||

দেবহাটা প্রতিনিধি: পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় ধাপে ২৫ জেলার ১১৭ টি উপজেলার ভোটগ্রহণ হবে আজ ২৪ মার্চ রোববার। তৃতীয় ধাপে রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও চট্রগ্রাম বিভাগের ২৫ জেলার ১২৭ টি উপজেলার ভোটগ্রহনের কথা থাকলেও কোর্টের আদেশে ১০ টি উপজেলার ভোট স্থগিত হয়েছে। ফলে ২৪ মার্চ ভোট হবে ১১৭ টি উপজেলার। তার মধ্যে সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটাসহ ৭ টি উপজেলায়ও একইদিনে ভোট গ্রহণ হবে। দেবহাটা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ৩ পদে লড়ছেন ১৪ প্রার্থী। নিজেদের জয় নিশ্চিত করতে অবিরাম প্রচার প্রচারণা শেষ করছেন তারা। এরই মধ্যে উপজেলার ৪০ টি ভোট কেন্দ্রগুলোর সামনে এবং বিভিন্ন প্রান্তে ব্যানার পোষ্টারে ছেয়ে দিয়েছেন প্রার্থীরা। প্রার্থী ও তার সমর্থকরা ভোটারদের কাছ ধর্ণা দিয়ে ভোট চেয়ে মাঠ চষে বেড়িয়েছেন। কিন্তু এরমধ্যে সংসয়ে রয়েছেন ভোটাররা। তারা পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে কেন্দ্রে যেতে পারবে কিনা এমনটিও মনে করছেন অনেকে। উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানান গেছে, উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে মোট ভোটার ৯৭,৮২৮জন। তার মধ্যে পুরুষ ৪৯,২১২ এবং নারী ৪৮,৬১৬ জন। ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। ইতোমধ্যে ৫টি ইউনিয়নের ৪০টি কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে। শনিবার বিকালে সকল কেন্দ্রে ভোটের মালামাল পৌছে গেছে। সেই সাথে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টিও মাথায় রেখে কাজ করছেন তারা। এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল গণি (নৌকা), সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. স.ম গোলাম মোস্তফা (আনারস), উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহাবুব আলম খোকন (ঘোড়া), সাবেক উপজেলা চেয়াম্যান মুক্তিযুদ্ধের ৯ নং সেক্টরের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম ক্যাপ্টেন শাহজাহান মাষ্টারের পুত্র সাঈদ মাহফুজুর রহমান (মোটরসাইকেল) এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ওজিহার রহমান (আম) প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। উপজেলার ভোটাররা মনে করছেন এবারের নির্বাচনে নৌকা ও আনারস প্রতীকের মধ্যে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি। কারন এবারের নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল গণি। তিনি পূর্বে উপজেলার নওয়াপাড়া ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক। পূর্বের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে জয়ের আশায় ভোটারদের মন জয় করতে কাজ করছেন তিনি। অন্যদিকে নৌকা প্রতীকের বিরোধী প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবং সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এড. গোলাম মোস্তফা। তার বিরুদ্ধে নৌকার বিরোধীতা করার অভিযোগ উঠলেও তার সাথে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এবং ৫ ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান ও জনপ্রতিনিধিরা। সে কারনেই অনেকটা জয়ের স্বপ্ন দেখছেন তিনিও। অন্যদিকে, ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান মিন্নুর (উড়োজাহাজ), সাবেক উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনি (টিউওয়েল), উপজেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুর রহমান বকুল (চশমা), সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান সবুজ (তালা) এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টির রিয়াজুল ইসলাম (আম) প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা পারভীন (ফুটবল), সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আমেনা রহমান (পদ্মা ফুল), সাবেক ইউপি সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য প্রিয়াংকা রানী (প্রজাপতি) এবং নাট্য পরিচালকের স্ত্রী জি.এম স্পর্শ (কলস) প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। এখন ভোটাররা প্রহর গুনছেন রোববারের জন্য। দেখার বিষয় রোববার ভোটাররা কাকে তাদের প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত করে উপজেলা পরিষদে পাঠান।