কুলিয়ায় ডিসিআরকৃত জমির স্থাপনা ভাংচুরের ঘটনায় আসাদুল হকের সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশিত : এপ্রিল ৫, ২০১৯ ||

দেবহাটা ব্যুরো: দেবহাটার কুলিয়াতে দীর্ঘদিনের ডিসিআরকৃত ভোগদখলীয় সম্পত্তির স্থাপনা অবৈধভাবে ভাংচুরের ঘটনার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আসাদুল হক। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কুলিয়াস্থ তার নিজস্ব বাগানবাড়িতে সংবাদ সম্মেলনকালে লিখিত বক্তব্যে আসাদুল হক বলেন, দেবহাটার কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ সংলঘœ কুলিয়া মৌজার ২নং খতিয়ানের ৫৭৫, ৫৭৬ ও ৫৭৭ দাগের ১৫শ’ বর্গফুট জমি সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের নিকট থেকে নিয়ম মোতাবেক ডিসিআর নিয়ে আমার স্ত্রী মেহেরুন নেছা বিগত ১৩/১৪ বছর যাবৎ ভোগদখল করে আসছে। ইজারা গ্রহনের প্রথম দিকে উক্ত জমিটি কৃষি শ্রেণির থাকলেও পরবর্তীতে আমার স্ত্রী মেহেরুন নেছার নামে ওই সম্পত্তিটি বাণিজ্যিক ভিত্তিতে ইজারা দেয় জেলা পরিষদ। চলতি বছরের জন্য সম্পত্তিটির ইজারার নবায়ন চেয়ে আমার স্ত্রী মেহেরুন নেছা জেলা পরিষদে লিখিত আবেদন জানালে আবেদনটি জেলা পরিষদের আগামী ১১ এপ্রিলের সভায় নিষ্পত্তি হওয়ার কথা উল্লেখ পরবর্তী জেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য এড. শাহানাজ পারভীন মিলিকে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। মঙ্গলবার সম্পূর্ণ বে-আইনীভাবে পূর্বের কোন নোটিশ ছাড়াই জেলা পরিষদ সদস্য মিলি ও তার স্বামী মোস্তাফিজ লোকজন নিয়ে আমার স্ত্রীর ডিসিআর কৃত জমিটির নির্মানাধীন স্থাপনা ভাংচুর করে। সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদসহ ডিসিআরকৃত সম্পত্তির স্থাপনা ভাংচুরের বিষয়টি তদন্ত পরবর্তী দোষীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।