পাটকেলঘাটায় অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূর আত্মহত্যা নিয়ে নানা গুঞ্জন


প্রকাশিত : এপ্রিল ১২, ২০১৯ ||

 

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি: পাটকেলঘাটার পশ্চিমপাড়া গ্রামে বৃহস্পতিবার বেলা ১০টার দিকে ৩ মাসের অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূ মরিয়ম খাতুন (২৩) বসত ঘরের আড়ার সাথে শাড়ীতে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে নানা গুঞ্জন উঠেছে ।

নিহত গৃহবধূর শ্বশুর এজাহার আলী ও শাশুড়ি জাহানারা বেগম জানায়, প্রায় ১ বছর পূর্বে তার ছেলে আলম সরদারের সাথে সাতক্ষীরা সদরের কুলিয়া শ্রীরামপুর গ্রামের আদর আলীর কন্যা মরিয়মের  পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। বিবাহের পর তারা বেশ ভালোভাবে সংসার করছিল। ঘটনার দিন সকাল ৯টার দিকে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। এ ঘটনায় স্ত্রী স্বামীর উপর বকাবকি করতে থাকলে স্বামী বেশ কয়েকটি চড়থাপ্পড় মেরে কাজে চলে যায়। পরে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘরের আড়ার সাথে শাড়ী ঝুলিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে স্বামীসহ পরিবারের লোকজন এসে বন্ধ দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে ঝুলন্ত অবস্থায় মরিয়মকে দেখতে পায়। তাৎক্ষণিক ঝুলন্ত শাড়ী কেটে নামিয়ে দেখে মরিয়ম মারা গেছে।

খবর পেয়ে নিহত গহহবধুর পিত্রালয় থেকে লোকজন এসে জানায় বিয়ের পর হতেই মরিয়মকে তার স্বামী মারপিট করতো। এ সময় তারা বলতে থাকে তাদের মেয়েকে হত্যা করে ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে এবং বিষয়টি থানাকে অবহিত করে। এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানার ওসি (তদন্ত) বিপ্লব কান্তি মন্ডল জানান লাশের গায়ে কোন আঘাত বা জখমের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়না তদন্তের জন্য লাশ সাতক্ষীরা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে পাটকেলঘাটা থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। তবে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।