কলারোয়ায় ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির উপর দিয়ে খাল খনন ডিসির আদেশ মানেননি পাউবো’র নির্বাহী প্রকৌশলী


প্রকাশিত : এপ্রিল ১৯, ২০১৯ ||

জয়নগর (কলারোয়া) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের লিখিত আদেশ মানেননি মর্মে জেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়াগেছে। অভিযোগে জানাগেছে, ৫৭ নং দিগং মৌজার ১৩৯ নং এস.এ খতিয়ান ভূক্ত ১৮৬৫ নং দাগের ৪৯ শতক জমি কলারোয়া উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত নাজেম মন্ডলের পুত্র কছিম উদ্দিন মন্ডল, কফিল উদ্দিন মন্ডল ও মোকছেদ আলি মন্ডলের নামে রেকর্ড হয়। বিগত মাঠ জরিপে ডিপি-৩৬৩ নং হাল খতিয়ানে উক্ত নাজেম মন্ডলের তিন পুত্রের নামে ওই জমি হাল ৩২৪৪ নং দাগে রেকর্ড হয় এবং পরবর্তীতে তাদের নামে জমির প্রিন্ট পর্চা হয়। উক্ত জমির ভূমি উন্নয়ন করও বাংলা ১৪২৫ সন পর্যন্ত মৃত নাজেম মন্ডলের ওয়ারেশগণ পরিশোধ করেছেন। উক্ত জমিতে মৃত নাজেম মন্ডলের ওয়ারেশগণ স্বত্ববান ও ভোগ দখলে থাকাবস্থায় তাদের অজান্তে অতীতে পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রথমবার নৌখাল খনন করে।
একই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে পানি উন্নয়ন বোর্ড তার হুকুম দখলকৃত অধিগ্রহণকৃত জমির উপর দিয়ে খাল খনন না করে সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড মৃত নাজেম মন্ডলের রেকর্ডীয় জমির উপর দিয়ে নৌখাল পুনঃখনন করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড পুনরায় যাতে ব্যক্তি মালিকানা জমির উপর দিয়ে নৌখাল পুন:খনন না করে তার জন্য গত ২৭/২/১৯ তারিখে মৃত নাজেম মন্ডলের ওয়ারেশ আবু তালেব সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে লিখিত আবেদন করেন। কিন্তু সে আবেদনে কোন ফল না পেয়ে উক্ত আবু তালেব গত ২০ মার্চ তারিখে উল্লেখিত বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক বরাবর একটি আবেদন করেন। আবেদন পেয়ে জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীকে ব্যক্তি মালিকানাধীন সম্পত্তির উপর দিয়ে খাল খনন যেন না হয় সে বিষয়ে সার্ভেয়ারের মাধ্যমে যাচাই করে ব্যবস্থা গ্রহণের আদেশ দেন।
কিন্তু জেলা প্রশাসকের সে অনুরোধের তোয়াক্কাই করেননি পাউবো’র নির্বাহী প্রকৌশলী। বরং আবারোও ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির উপর দিয়ে নৌখাল পুনঃ খননের চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে পাউবো’র সাতক্ষীরার নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে।