পুষ্পকাটিতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত স্থগিত


প্রকাশিত : এপ্রিল ৩০, ২০১৯ ||

কুলিয়া (দেবহাটা) প্রতিনিধি: দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের পুষ্পকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তনিমা পারভিনের বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্তে এসে দুই পক্ষের উত্তেজনার মুখে তদন্ত স্থগিত করা হয়েছে। জানা যায়, পুষ্পকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও অনান্য কয়েক জন সদস্য প্রধান শিক্ষিকা কর্তৃক শিশুদের শারিরীক ও মানসিক শাস্তি, গালি-গালাজ, ক্লাস থেকে শিক্ষার্থীদের বের করে দেওয়া, শিক্ষার্থীদের টিউশনি করানোসহ জোর করে টিউশনি ফি আদায় এবং অভিভাবকদের সাথে অসদাচারণের অভিযোগ এনে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেন। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক অভিযোগটি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে তদন্তের নির্দেশ দেন। যার প্রেক্ষিতে সোমবার জেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা বাবুল আক্তার ও দেবহাটা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মনির হোসেন তদন্তে আসেন। এসময় তদন্তকারী কর্মকর্তারা অভিযোগকারীদের কাছে অভিযোগের কোন ঘটনা না শুনে বা অভিযোগের সত্যতা যাচাই বাছাই না করেই অভিভাবক সদস্যদের কাছে সাদা কাগজ দিয়ে বলেন, আপনারা প্রধান শিক্ষককে রাখবেন কিনা ও আপনাদের বক্তব্য লিখে দেন। এই কথার প্রেক্ষিতে অভিযোগকারীরা তদন্ত এক তরফা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুললে অভিযোগকারীগণ ও প্রধান শিক্ষকের পক্ষের লোকজনদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এমতাবস্থায় তদন্তকারীরা তদন্তের জন্য অভিযোগকারীদের নোটিশের প্রক্রিয়াটি সঠিক ছিলনা বলে তদন্ত স্থগিত করে পুনরায় তদন্ত করা হবে মর্মে তড়িঘড়ি করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। এ ব্যাপারে এলাকাবাসির দাবি এভাবে চলতে থাকলে আমাদের সন্তানদের লেখাপড়ায় বিঘœ ঘটছে।