সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও সনাকের মতবিনিময় সভায় সেবার মানোন্নয়ন ও প্রাতিষ্ঠানিক শুদ্ধাচার চর্চার প্রতিশ্রুতি প্রদান


প্রকাশিত : মে ৩০, ২০১৯ ||

বুধবার সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে সদর হাসপাতালের সেবার মান উন্নয়ন ও প্রাতিষ্ঠানিক সুশাসনস নিশ্চিত করার লক্ষ্যে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এর মতবিনিময় সভা আয়োজন করা হয়। হাসপাতাল তত্বাবধায়ক ও সিভিল সার্জন ডা. মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়। সনাক’র সভাপতি কিশোরী মোহন সরকার, সহ-সভাপতি মো. তৈয়েব হাসান, সনাক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির আহ্বায়ক ডা. সুশান্ত ঘোষ, সনাক সদস্য প্রফেসর আব্দুল হামিদ, ড. দিলারা বেগম, ডা. কানিজ ফাতেমা, ডা. এহেছেন আরা, ডা. মো. আসাদুজ্জামান প্রমুখ আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। হাসপাতালের সেবার মানোন্নয়নে প্রাতিষ্ঠানিক শুদ্ধাচার চর্চায় সনাক’র পর্যবেক্ষণ তুলে ধরা হয়। বিশেষ করে সাম্প্রতিক সময়ে সদর হাসপাতালের যন্ত্রাংশসহ বিভিন্ন সামগ্রী ক্রয়ে অনিয়মের বিষয়ে উল্লেখ করে এর সুষ্ঠু তদন্ত নিশ্চিত করা ও সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সিভিল সার্জনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। পাশাপাশি ভবিষ্যতে সকল কার্যক্রম স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন করা এবং সরকারের স্বাস্থ্য নীতিমালা অনুসারে হাসপাতালের সকল ক্রয় ও সেবা নিশ্চিত করার সুপারিশ করা হয়। তা ছাড়া প্রতিটি উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স এর সেবার মানোন্নয়ন ও সেবা প্রদানে প্রাতিষ্ঠানিক সুশাসন চর্চায় গৃহীত পরিকল্পনা বাস্তবায়নের বিষয়ে সিভিল সার্জন কর্তৃক চিঠি প্রেরণ করা, দৃশ্যমান স্থানে অভিযোগ বক্স স্থাপন করা, হাসপাতালের সেবা সংক্রান্ত অভিযোগ গ্রহণ ও নিষ্পত্তি এবং স্বপ্রণোদিতভাবে তথ্য প্রকাশসহ তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ এর আওতায় নাগরিকদের আবেদন গ্রহণ ও তথ্য প্রদানের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।
সিভিল সার্জন জানান, হাসপাতালের বিগত সময়ের ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতির বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। আগামী দিনে সকল বিষয়ে সরকারের নীতিমালা অনুসারে এবং কোন গোপনীয়তা না করেই এ ধরনের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে। যদি কেউ কোন অনিয়ম করে তার দায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে নিতে হবে। কারো বিষয়ে কোন অভিযোগ থাকলে লিখিতভাবে জানালে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সভা পরিচালনা করেন টিআইবি এরিয়া ম্যানেজার আবুল ফজল মো. আহাদ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি