দেবহাটায় রতন হত্যা প্রচেষ্টার আসামী তাঁতী লীগের সদস্য সচিব!


প্রকাশিত : জুন ৩, ২০১৯ ||

পত্রদূত রিপোর্ট: দেবহাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতনকে গুলি করে হত্যা প্রচেষ্টা মামলার এজাহার নামীয় আসামী সখিপুরের সাবেক শিবির নেতা মো. ওলিউল্লাহকে সখিপুর ইউনিয়ন তাঁতী লীগের সদস্য সচিব করে দলীয় ভাবমুর্তি ক্ষুণেœর প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে আওয়ামী লীগসহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠন। রবিবার সকাল ১০টায় উপজেলার পারুলিয়া শহীদ আবু রায়হান চত্তরে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের ব্যানারে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুজিবর রহমান, সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ফারুক হোসেন রতন, যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্নুর, সাধারণ সম্পাদক বিজয় ঘোষ, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এএইচ সোহাগ হোসেন প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এক ঐতিহ্যবাহী সংগঠন। সেই সংগঠনের নিবেদিত সৈনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ফারুক হোসেন রতনকে যারা গুলি করে হত্যার চেষ্টা করেছে তাদের মধ্যে অন্যতম শিবির নেতা মো. ওলিউল্লাহকে যারা ইউনিয়ন তাঁতী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত করেছে তারা আওয়ামী লীগকে ভালোবাসেনা এবং জামায়ত শিবিরের এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী। তারা নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্যই শিবির নেতাদের আওয়ামী লীগের পদে বসিয়ে দলকে কলুষিত করছে। রতন হত্যা প্রচেষ্টা মামলার এজাহার নামীয় আসামী সাবেক শিবির নেতা ওলিউল্লাহর বিরুদ্ধে সহিংসতাকালীন নাশকতায় অংশগ্রহণসহ নেতৃত্বের অভিযোগ থাকা স্বত্তেও তাকে ইউনিয়ন তাঁতী লীগের সদস্য সচিব কিভাবে করা হলো সেই প্রশ্ন তুলে ধরেন বক্তারা। অবিলম্বে সখিপুর ইউনিয়ন ও উপজেলা তাঁতী লীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণাসহ শিবির নেতাকে পদে বসানো নেতাদের বিরুদ্ধেও কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার জন্য জেলা আওয়ামী লীগ ও তাঁতী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে দাবী জানান বক্তারা।
এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা শেখ মোনায়েম হোসেন, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রউপ, পারুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, কুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল কুদ্দুস, সাধারণ সম্পাদক বিধান বর্মন, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহমুদুল হক লাভলু, সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন সাহেব আলী, সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কাশেম, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি শেখ তাজুল ইসলাম, পারুলিয়ার আওয়ামী লীগ নেতা রবিউল ইসলাম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব লোকমান কবির, কুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন, পারুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল আহম্মেদ, সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শাহীন সিরাজ, সাধারণ সম্পাদক হালিম মোস্তফা, সখিপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মহব্বত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক বাচ্চু, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সভাপতি মেহেদী হাসান সুইটসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২ জানুয়ারি সখিপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতনকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয় । এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় এজাহার নামীয় আসামী তালিকায় রয়েছে উক্ত ওলিউল্লাহ।