শ্যামনগরে তালাকের পর স্ত্রীকে যৌন নির্যাতন!


প্রকাশিত : June 26, 2019 ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী পল্লীর গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত আবু তালেব গাজীর পুত্র আবু তাহের নিজ স্ত্রীকে অন্যায় ভাবে তালাকের পর যৌন নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগটি করেন একই গ্রামের তার স্ত্রী আরব আলী শেখের কন্যা সোনিয়া খাতুন। সোনিয়া খাতুন জানান, গত সাত বছর আগে আবু তাহেরের সাথে সোনিয়ার বিয়ে হলে শান্তিপূর্ণ ভাবে ঘর সংসার চলতে থাকে। দুজনের সংসারে ৫বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। গত ১৬ জুন তার স্বামী আবু তাহের তাকে গোপনে তালাক দিয়ে কয়েক রাত-দিন তার বাড়িতে যৌন নির্যাতন করে। পরবর্তীতে তালাকের নোটিশ পেয়ে সোনিয়া এর কারণ জানতে চাওয়ায় আবু তাহের তাকে ব্যাপক মারপিট করে জোরপূর্বক তাদের বাড়ি থেকে শিশুপুত্রসহ বিতাড়িত করে।স্থানীয়রা সোনিয়াকে উদ্ধার করে শ্যামনগর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। গত কয়েক বছর ধরে কয়েক দফায় প্রায় লক্ষাাধিক টাকা আবু তাহের যৌতুকের জন্য টাকা নিলেও তাদের সংসারে ঝগড়া লেগেই থাকে। সোনিয়া আরো জানান, তার স্বামী মাদকাসক্ত ও নারী লোভী হয়ে পরকিয়া প্রেমের কারণে সংসারের ঝগড়া শেষ পর্যন্ত সমাপ্তি করে তালাকের মাধ্যমে। আবু তাহের নিজ অপরাধ ঢাকতে তার ঘরের জিনিসপত্র ভাংচুর করে। এ ঘটনায় মিমাংশা করতে স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ কয়েক দফা প্রচেষ্টা করেও আবু তাহেরের কারণে ব্যর্থ হয়। আবু তাহেরের বিরুদ্ধে অনীত অভিযোগ গুলো দ্বিমত ব্যক্ত করে তালাকের বিষয় ও রাত্র যাপন করার কথা স্বীকার করেন। সোনিয়া ১ সন্তান নিয়ে অসহায়ের মধ্যে থাকলেও তাকে হত্যা করার হুমকি দিচ্ছে আবু তাহের বলে সোনিয়া জানান। সোনিয়ার নির্যাতনের সুষ্ঠু বিচারের দাবীতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন সোনিয়াসহ এলাকার সুশীল সমাজ।