শ্রীরামপুরে শ্যালকদের হাতে প্রহৃত হয়ে ভগ্নিপতি ও তার মা হাসপাতালে


প্রকাশিত : জুন ২৯, ২০১৯ ||

কুলিয়া (দেবহাটা) প্রতিনিধি: সদর উপজেলার শ্রীরামপুরে শ্যালকদের হামলায় ভগ্নিপতি ও তার মা আহত হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জানাযায়, বিগত কয়েক বছর পূর্বে দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের শশাডাঙ্গা গ্রামের আকবর আলীর কন্যা নাসিমা খাতুনের সাথে সদরের শ্রীরামপুর গ্রামের শামসুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম খোকার বিবাহ হয়। কয়েক মাস পূর্বে তাদের মধ্যে সাংসারিক গোলযোগ দেখা দেয়। এক পর্য়ায়ে স্ত্রী নাসিমা শশাডাঙ্গায় তার পিতার বাড়ি চলে যায় এবং কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। গত ১৯ জুন কুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের শান্তিপূর্ণ মিমাংসার মাধ্যমে সাইফুল ইসলাম খোকা তার স্ত্রী নাসিমাকে বাড়িতে নিয়ে আসে। এমতাবস্তায় গত ২৭ জুন তুচ্ছ সাংসারিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে নাসিমা আবারো তার বাপের বাড়ি চলে যায় এবং হঠাৎ করে গতকাল সকাল দশটার দিকে সাইফুল ইসলাম খোকার স্ত্রী নাসিমা, তার দুই ভাইসহ অজ্ঞাত ৮/১০ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সাইফুল ইসলাম খোকার পরিবারে উপর হামলা করে। স্থানীয় লোকজন খোকা ও তার মাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে এবং হামলাকারী দের মধ্যে শশাডাঙ্গা গ্রামের আকবর আলীর পুত্র মালেক (২৮) ও সামাদ (২৫) এবং মনিরউদ্দীন গাজীর পুত্র সিরাজুল ইসলাম (৪৫)কে একটি দা ও হাতুড়ীসহ আটক করে সদর থানা পুলিশ কে সংবাদ দেয়। সদর থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে আটক কৃতদের জনরোষের হাত থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। এ ব্যাপারে সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে ছয় জনের নামে সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।