কলারোয়ায় মাদক নির্মূলে উপজেলা প্রশাসন বদ্ধপরিকর


প্রকাশিত : জুলাই ২, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র ধ্বংসকারী মাদক নির্মূল করতে কলারোয়া উপজেলা প্রশাসন সর্বদা বদ্ধপরিকর-এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এমনই মন্তব্য করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহ নেওয়াজ।
এ সময় তিনি বলেন, মাদক মুক্ত কলারোয়া উপজেলা গঠন করতে নানা ধরনের উদ্দ্যেগ গ্রহণ করা হয়েছে। মাদক সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। নতুন আইন বাস্তবায়ন না হওয়ায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা আপাতত বন্ধ রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করলেও আমরা মাদক নির্মূলে রাজনৈতিক ভাবে তেমন উলে¬খযোগ্য কোনো সহযোগিতা পাই না।
মাদক নির্মূলে সচেতনতার ব্যাপারে তিনি বলেন, আপাতত তেমন কোনো প্রকল্প চলমান না থাকলেও উপজেলা প্রশাসনের সকল অনুষ্ঠানে আমরা মাদকের ব্যাপারে সচেতনতা মূলক বক্তব্য দিয়ে থাকি। যুব সমাজকে সচেতন করতে সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আমরা উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে মাদক বিরোধী সমাবেশ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি এবং শিগ্রই তা বাস্তবায়িত হবে বলে আশা করছি।
কলারোয়া উপজেলা যেহেতু একটি সীমান্তবর্তী জনপদ সুতরাং এখানে মাদক নির্মূল অত্যন্ত কঠিন। তারপরেও উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় বিজিবি’র বিওপি গুলো এ ব্যাপারে সব সময় তৎপর রয়েছে। এমনকি প্রতিনিয়ত বড় ছোট কেউ না কেউ মাদক ব্যবসায়ী আটক হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসনের মাসিক সভায় আমরা মাদক চোরাচালান বন্ধের ব্যাপারে নিয়মিত আলাপ আলোচনা করে থাকি।
সম্প্রতি কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সের ভিতরে প্রাইভেটকার থেকে আটককৃত ১২১০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের ঘটনা উলে¬খ করে তিনি বলেন, আমরা নিয়মিত এ ধরনের অভিযান চালিয়ে সফল হলেও সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় মাদক নির্মূল কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। তিনি মাদক নির্মূল সাংবাদিকসহ উপজেলার সচেতন মহলের বিশেষ সহযোগিতা কামনা করেন।