কলারোয়ায় পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা


প্রকাশিত : জুলাই ৩, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় পুলিশ পরিচয়ে ভাড়ায় চালিত এক মোটরসাইকেল চালককে আটকিয়ে তার দেহ তল্লাসী করে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেছে ৩ যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী কাঁদপুর শ্মশান ঘাট মোড় এলাকায়। এবিষয়ে কলারোয়া থানায় ৩জনের নামে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।
যশোরের শার্শা থানার গোগা গ্রামের মৃত আব্দুল রহিমের ছেলে মোটরসাইকেল চালক আব্দুল জলিল (৪৮) সাংবাদিকদের জানান সাতক্ষীরার কলারোয়ার চান্দুড়িয়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে নাজমুল ইসলাম (২৭), মুকুল মোড়লের ছেলে সোহেল মোড়ল (২৮) ও গোয়ালপাড়া গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে আবুল কালাম (৩০) মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কাঁদপুর শ্মশান ঘাট মোড় এলাকায় একা পেয়ে মোটরসাইকেল গতিরোধ করে। এসময় ওই ৩ যুবক নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে তাকে চারদিক থেকে ঘিরে ধরে। মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে নিয়ে সোহেল মোড়ল মাটরসাইকেল চালক আব্দুল জলিলকে ধরে সারা শরীর তল্লাসী করে। এক পর্যায়ে তাকে রাস্তার পাশে বাগানের মধ্যে নিয়ে যাওয়ার জন্য টানা হেচড়া শুরু করে। এ সময় কয়েকজন পথচারী রাস্তা দিয়ে আসতে দেখে ওই ৩ যুবক একটি লাল রংয়ের পালসার মোটরসাইকেল যোগে দ্রুত পালিয়ে যায়।
আব্দুল জলিল আরো জানান, তিনি মোটরসাইকেল ভাড়ায় চালিয়ে জীবন জীবিকা নির্বাহ করেন। ঘটনার সময় তিনি উপজেলার চান্দুড়িয়া গ্রামের বেয়াই ইসারুল ইসলামের বাড়ী থেকে নিজ বাড়ীতে ফিরছিলেন। পথচারীদের উপস্থিত টের পেয়ে ওই ৩যুবক পালিয়ে যাওয়ার সময় তিনি তাদের পিছু নিয়ে চান্দুড়িয়া বাজারে এসে স্থানীয় লোকজনদের সাথে কথা বলে নাম ও ঠিকানা জানতে পারেন। এদিকে অভিযুক্ত নাজমুল হোসেনের ফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এবিষয়ে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মুনীর-উল-গীয়াস জানান, একটি অভিযোগ পেয়েছেন। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।