ঠানদি


প্রকাশিত : আগস্ট ২, ২০১৯ ||

হিমাদ্রি হাবীব
বিন্দু আমার ঠানদি পরম
সুরটা গলার মন্দ চরম
গান বেরোতো হদ্দ নরম,
শুনলে পরে লাগতো শরম।
কণ্ঠে যেদিন সর্দি হলো
ঠানদি সেদিন ম’লো! ম’লো!
অমনি এসে বদ্যি ক’লো-
বিন্দু পিসি, বসুন বসুন!
তিনটি আনুন লঙ্কা-রসুন-
সেইটি পিষে গলায় ঘষুন।
ঠানদি এদিক সরে এসে
ফিক্ করে এক মিষ্টি হেসে
বদ্যি মিয়ার উর্দি ধরে
মারলো ছুঁড়ে পায়ের খড়ম।
ঠানদি বুড়ির চান্দি গরম।
ঠানদি ঘরে করলে রেওয়াজ
বন্ধ হতো আওয়াজ-কেওয়াজ,
কাশতোও না কেউ জোরে;
কিন্তু ঠানের পোষা কুকুর
ডাকতো কেবল ঘেউ করে।