কলারোয়ায় চাঁদা চাওয়ায় ৪ ভূয়া সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মীকে জরিমানা


প্রকাশিত : আগস্ট ২৯, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় ভূমি অফিসে চাঁদা চাওয়ায় ৪ ভূয়া মানবাধিকার কর্মীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার বেলা সাড়ে ৩ টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।
জানা গেছে, সাতক্ষীরার গণমাধ্যমকর্মী ও মানবাধিকার সংস্থার কর্মী পরিচয় দিয়ে কলারোয়া ভূমি অফিসে আসেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কুশখালী গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে ফারুক হোসেন (২৮), বকচরা গ্রামের সামছুদ্দিন আক্তারের ছেলে আক্তারুজ্জামান (৩৫), আফসার উদ্দীনের ছেলে হাফিজুর রহমান (৪১) ও কাথনদা গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে আসমাতুল্লাহ (২১)। এসময় তারা বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশন ও বাংলাদেশ ভূমিহীন সমিতির বিভাগীয় কমিটি খুলনার উদ্যোগে পরিচিতি সভার একটি চিঠি দিয়ে টাকা দাবী করেন। তখন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আকতার হোসেন তাদেরকে বলেন, আপনারা কি বলছেন, একটু ভাল করে বলেন। এসময় ওই ৪ ব্যক্তি সহকারী কমিশনারের কাছে টাকা দাবি করেন। তাৎক্ষণিকভাবে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরএম সেলিম শাহনেওয়াজকে বিষয়টি জানান।
অবস্থা বেগতিক দেখে ওই ৪ ব্যক্তি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে স্থানীয় জনতা তাদের ধরে ফেলে। তাৎক্ষণিকভাবে তারা তাদের নিজেদের দোষ শিকার করে নেয়ায় ওই স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ৪ ভূয়া মানবাধিকার কর্মীকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। খবর পেয়ে কলারোয়া থানা পুলিশ ভূমি অফিসে গিয়ে তাদের আটক করে।
এসময় তাদের কাছে থাকা সকল কাগজপত্র ও ভূয়া কার্ড জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আকতার হোসেন। এসময় সেখানে কলারোয়া থানার এসআই ফারুক হোসেন, সাংবাদিক জুলফিকার আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।