লিগ্যাল এইড কার্যক্রমে কেবল সংখ্যাগত নয় গুণগত পরিবর্তন আনা হচ্ছে : শেখ মফিজুর রহমান


প্রকাশিত : আগস্ট ২৯, ২০১৯ ||

বদিউজ্জামান: জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান বলেছেন, লিগ্যাল এইড কার্য্যক্রমে কেবল সংখ্যাগত নয় গুনগত পরিবর্তন আনা হচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা কাজের মাধ্যমে আমাদের অস্তিত্ব জানান দিতে চাই, আমরা বায়বিয় প্রচারে বিশ্বাসী নই। তিনি আরও বলেন, যত দিন যাচ্ছে লিগ্যাল এইড অফিস তাদের কাজের মাধ্যমে বিচারপ্রর্থী সাধারণ মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিচ্ছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় জেলা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির মাসিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তফা পাভেল রায়হান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জিয়াউর রহমান, জেলা তথ্য অফিসার মোজাম্মেল হক, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক তোজাম্মেল হোসেন তোজাম, সরকারি কৌশুলী সরকার যামিনি কান্ত, পাবলিক প্রসিকিউটার (পিপি) তপন কুমার দাস, জেলা কারাগারের জেলর তুহিন কান্তি খান, প্রেস ক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহম্মেদ, এনজিও কর্মী আশরাফুজ্জামান, অ্যাড. মনিরুদ্দীন ও সাকিবুর রহমান সাকিব প্রমূখ।
সভায় জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার সালমা আক্তার জানান, আগস্ট মাসে লিগ্যাল এইড অফিসে মোট ৪৪টি আবেদন জমা পড়েছে, তার মধ্যে সরাসরি পড়েছে ৩৭টি এবং জেলখানা হতে এসেছে ৭ টি আবেদন। তিনি আরও জানান, মামলা দায়ের হয়েছে ২৯ টি এবং আইনি পরামর্শ নিয়েছেন ৩৩ জন। এছাড়া আপোষ মিমাংসার ১৫ টি আবেদনের মধ্যে সফল নিষ্পত্তি হয়েছে ৮ টি এবং প্যানেল আইনজীবীদের ৭টি বিলের বিপরীতে ২৭ হাজার ৬৫০ টাকা ফি পরিশোধ করা হয়েছে।
সভায় আরও জানানো হয়, অসহায় বিচার প্রর্থীদের যাতায়াত ও দুপুরে খাবারের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদানের নিমিত্তে গঠিত তহবিলে জমাকৃত ৩৭ হাজার টাকার মধ্য হতে ৬৬ জনকে ৯ হাজার ৪৫০ টাকা সহায়তা করা হয়েছে।
সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারি জজ সালমা আক্তার।