ভোমরা বন্দরে প্রাচীর ও নির্মাণাধীন গোডাউন ভাঙচুর: লুটপাটের অভিযোগ


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৯ ||

মনিরুল ইসলাম মনি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে এক ব্যবসায়ীর গুদাম ঘর ও সীমানা বেড়া ভাঙচুর করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সদর উপজেলার ভোমরা ফুলতলা নামকস্থানে এ ঘটনা ঘটে।

ভোমরা বন্দরের সিএন্ডএফ এজেন্ট মা এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী জিএম আমীর হামজা বলেন, শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সময় প্রতিপক্ষ হারুন অর রশীদের ছেলে রফিকুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, রফিকুলের ছেলে মিজানুর রহমান, শহীদুলের ছেলে মিঠুন হোসেনসহ ২৫/৩০ জন তার নির্মাণাধীন ঘর ও প্রাচীর ভাঙচুর করে। এ সময় তারা কাটা তারের বেড়া দেওয়া সীমানা প্রাচীর তুলে দিয়ে ঘরের মধ্যে থাকা কয়েকটি ফ্যান ও ক্যাশ বাক্সে থাকা টাকা লুটপাট করে। ভাঙচুর ও লুটপাটে বাঁধা দেওয়ায় তার কর্মচারি শফিকুল ইসলাম, সোহেল রানা, আবুল হোসেন ও রায়হান ইসলামকে মারপিট করে।

জানতে চাইলে মিজানুর রহমান বলেন, গোলাম মোস্তফার কাছ থেকে পাঁচ শতক জমি কিনে মা ও মামার নামীয় ৩৫ বছর দখলীয় জমি দখল করার চেষ্টা করে আমীর হামজা। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মেশিন ও লোকজন দিয়ে তাদের দখলীয় সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করে আমীর হামজা। পরে সেখানে নতুন করে ঘর নির্মাণ করে জমি জবরদখল করার চেষ্টা করলে তারা বাঁধা দেন।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার সকালে রফিকুল ইসলামের অভিযোগ পেয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশে উভয়পক্ষকে কাগজপত্রসহ শনিবার সকালে থানায় আসতে বলা হয়েছে।