প্রতিশ্রুতি/ ইমরোজ সোহেল


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯ ||

রাতের সাথে দিনের দেখা হয় ইদানিং রোজ দুইবার
তোমার সাথে একবারও না।
জীবনের পথ ঘাট এইভাবে হয়ে যাচ্ছি পার।
কখনও মাড়াচ্ছি কাঁটা
কখনও মসৃণ পাথরে রাখছি আমার খসখসে পা’টা।
সূর্যের সাথে চাঁদের দেখা হয় কতদিন পর?
পূর্ণিমা অমাবস্যার সাথে কখন করে আলিঙ্গন
সযতেœ বাঁধে ঘর, শুরু হয় বিবিধ প্রণয়
মেঘ বুক থেকে ঝেড়ে ফেলে দেয় বৃষ্টিকে যখন প্রলয়।
কতটুকু অবহেলা থাকে সমুদ্রের
যখন নিরীহ নদী এসে দিগম্বরের মতো তার দেহে মেশে
খুলে ফেলে পটাপট শাড়ী, চুমু খায় রমণীর বেশে?
ধুতুরায় বিষ থাকে, তবুও মানুষ চোষে তার রস
একটু আঁধার হলেই নারীত্বকে করে ভীষণ তসনস।
দেখা হলে কথা হয়, কথা হলে শুকনো হৃদয় কাঁপে
উথলে ওঠে স্মৃতি,কেটে যায় কিছুটা সময়
কিছু সুখ, কিছু সন্তাপে। সময়েরা পার হয় ঘাট
ধাপে ধাপে সরিয়ে জঞ্জাল। এরই নাম মহা মহাকাল।
এই দেখা কতদিন পর?
মাঝে মাঝে সপ্তাহ, মাঝে মাঝে কেটে যায় তরতর
করে আরও আরও দিন,
এর পর বাঁশি বাজে, তুমিও বাজাও জীবনের বীন
পালক খসেছে পড়ে, অকাতরে উড়তে পারি না
অথচ উড়বার কত সাধ,
কষ্ট পাও তুমি, জানি, ভেঙে যায় তোমাদের ধৈর্যের বাঁধ
এই ভাবে বেড়ে যায় দিনে দিনে প্রতিশ্রুত ঋণ।
শুধতে পারিনা, অবশেষে মৃত্যুর সিঁড়ি গুনি এক দুইতিন