তালা কানাইদিয়াই শিশু সন্তানকে জিম্মি করে অভিনব কায়দার লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ ||

ইলিয়াস হোসেন, তালা (সদর): তালা কানাইদিয়া গ্রামে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে অভিনব কায়দায় চুরি সংগঠিত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে কানাইদিয়া গ্রামে মৃত কুঞ্জনাথ এর পুত্র কার্তিক চন্দ্র নাথ (৮২) এর বাড়িতে।
ঘটনার বিবরণে কার্তিক চন্দ্রের বোনের স্বামী শিক্ষক মানিক চন্দ্র বলেন, গত রাতে খাওয়ার পরে আমার বোন ভগ্নিপতিসহ বাড়ির লোকজন ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ১টার দিকে মাটির ঘরের পিছন থেকে সীদকেটে চোর ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে। আমার ভগ্নিপতি বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলেন। বোন এবং বোনের মেয়ে ছিলো ঘরের ভিতর। চোর সীদকেটে প্রথমে ঘরে ঢুকে দরজা খুলে বারান্দায় এসে আমার ভগ্নিপতিকে সাবল দিয়ে আঘাত করে। আঘাতের ফলে চিৎকারে ঘরের ভিতরে থাকা বোন ভবানী দেবনাথ (৬৫), মেয়ে পম্পা দেবনাথ (৩৫)সহ শিশু সন্তান সবাই জেগে উঠে। তারা চিৎকার দেওয়ার সাথেই বোনকে বেঁধে ফেলে এবং বোনের মেয়ের ৫ বৎসরের শিশু সন্তানকে জিম্মিকরে। শিশু সন্তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে বোন ও বোনের মেয়ের কাছে থাকা ২জনের গলার চেইন, কানেরদুল এবং ঘরে থাকা নগদ ৪হাজার টাকা, পিতলের জিনিসপত্রসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বরকে জানালে তারা তালা থানায় খবর দেয়। তালা থানার অফিসার্স ইনচার্জ মেহেদী রাসেল জায়গাটি পরিদর্শন করেছেন।
এ বিষয়ে তালা থানা অফিসার্স ইনচার্জ মেহেদী রাসেল বিষয়টি সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সংবাদ শুনে আমি স্বরজমিনে পরিদর্শন করেছি। চোর ধরার চেষ্টা চলছে এবং ঐ এলাকায় পুলিশ এর টহল ডিউটি বাড়িয়ে দিয়েছি।