শখের বসে কবুতর পালন করে স্বাবলম্বী শাহজাহান (ভিডিওসহ)


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯ ||

আসাদুজ্জামান সরদার: কয়েক বছর আগে শখের বসে বাজার থেকে একজোড়া কবুতর কিনেছিলেন সদর উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়নের শাহজাহান হোসেন।

কিছুদিন পালন করার পর একজোড়া বাচ্চাও হয় সেই কবুতরের। সেখানে থেকেই তার কবুতরের বংশবৃদ্ধি। এখন তার কাছে ৭০ জোড়া কবুতর আছে। তখন থেকেই মাথায় আসে বাণিজ্যিকভাবে কবুতর পালন করা। এরপর আরও কিছু কবুতর কিনে বাড়ির আঙিনায় গড়ে তোলেন কবুতরের খামার।

কবুতর পালনকারী শাহজাহান হোসেন বলেন, আমার ছোটবেলা থেকেই কবুতর পালনের নেশা ছিলো। সেই সময় আমার পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো ছিলো না। কিন্তু আমি কবুতর পালন করতাম। সে কারণে বাবার কাছে অনেক মার খেতে হয়েছে।


তিনি আরও বলেন, বেশ কয়েক বছর আগে আবাদের হাট থেকে কয়েক জোড়া কবুতর ক্রয় করেন। সেখানে থেকে বৃদ্ধি পেতে পেতে আজ তার ৭০ জোড়া কবুতর। বর্তমানে তার খামারে হোমার, গিরিবাজ, লোটনসহ ১০ প্রজাতির দেশি-বিদেশী কবুতর রয়েছে। এর মধ্যে ৮ হাজার টাকা মূল্যের লোটন আছে ৬ থেকে ১০ হাজার সিরাজি ও লোটন এবং দেশি সোয়াচন্দন।

বর্তমানে তার খামারে উৎপাদিত বিভিন্ন জাতের কবুতরের বাচ্চা দেশের বিভিন্ন জেলার পাইকারদের কাছে ১ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকা জোড়ায় বিক্রি করেন।

প্রতিবেশি আমিনুর রহমান জানান, দেশি-বিদেশী বিভিন্ন জাতের কবুতর পালন করে আজ স্বাবলম্বী হয়েছেন। তার বাড়িতে অনেক ধরনের কবুতর আছে।