পাটকেলঘাটায় গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯ ||

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি: পাটকেলঘাটায় সুমা হালদার (১৮) নামের এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার সকালে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এরআগে মঙ্গলবার রাতে পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া এলাকার কৃষ্ণনগর গ্রামের মালোপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।  ঘটনার পর থেকে নিহত গৃহবধূর স্বামী, শাশুড়ি ও ভাশুর পলাতক রয়েছে।

নিহতের পিতা তালার শ্রীমন্তকাটি গ্রামের পুলিন হালদার ও স্থানীয়রা জানান, মাত্র একমাস ১৮ দিন পূর্বে ধানদিয়া এলাকার কৃষ্ণনগর গ্রামের আনন্দ বিশ্বাসরে ছেলে সুব্রত বিশ্বাসের সাথে বিয়ে হয় তার মেয়ে সুমা হালদারের। বিয়ের সময় বাবার দেওয়া পাঁচভরি সোনার গহনা নেওয়ার জন্য নিয়মিত চাপ দিতে থাকেন তারা স্বামী সুব্রত, শাশুড়ি করুনা বিশ্বাস ও ভাশুর বাসুদেব বিশ্বাস।

সুমা হালদার তার নিজের ব্যবহারের গহনা দিতে রাজি না হওয়ায় তার স্বামী সুব্রত বিশ্বাস, ভাশুর ও শাশুড়ি তাকে পিটিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ঘরের আড়ার সাথে গলায় গামছা দিয়ে ঝুলিয়ে দেন। পরে এলাকায় প্রচার করেন যে, তাদের বৌ আতœহত্যা করেছে। পাটকেলঘাটা থানা পুলিশ খবর পেয়ে নিহত ওই গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করে।

পাটকেলঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রেজাউল ইসলাম বলেন, নিহত ওই গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তজন্ত না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। স্বামী সুব্রত বিশ্বাস কে প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।